ভালবাসা কেমন

ভালবাসা কেমন

গল্পটি কারো বাস্তব জীবনের সাতে মিলে গেলে আমি দায়ি না। আর হাতে ২মিনিট সময় নিয়ে পড়বেন।

মেয়ে : কেমন আছো ?

ছেলে : কে বলছেন ?

মেয়ে : আমি বলছি, ছেলে : আমিটা কে ?

মেয়ে : তুমি আমাকে চিনতে পারছোনা ?

ছেলে : নাম না বললে চিনবো কী ভাবে ?

মেয়ে : তুমি আমার কণ্ঠটাও ভুলে গেছো, এত কথা বলেছি আমরা, আমি বিশ্বাস করিনা, তুমি আমাকে চিনতে পারোনি । আমার উপর রাগের কারণে এরকম করছো তাই না ?

ছেলে : কথা বললে কি কণ্ঠ চেনা যায়, পাশে থাকলে কি মানুষ চেনা যায়, ভালোবাসি বললেই কি ভালোবাসা যায়, আর রাগ কিসের রাগ ? মেয়ে : এত দিন পরে কথা হচ্ছে, তুমি আজো এমন কঠিণ করে কথা বলবে, এখনো আমায় ক্ষমা করতে পারোনি ?

ছেলে : আমার জীবনটাই তো এখন কঠিণ, তাহলে সহজ করে কথা বলবো কীভাবে, ক্ষমাটা আসলো কথা থেকে ?

মেয়ে : আমি কত বড়ো অপরাধ করেছি, সেতো আমি জানি, যার জ্বালায় এখনো জ্বলে পুরে মরছি, কেমন আছো ?

ছেলে : মনে কর ডানা কাটা পাখির মতো, যার ইচ্ছা থাকলেও উড়ার ক্ষমতা নেই ।

মেয়ে : এখনো জেগে আছো, ঘুমোওনি কেন ?

ছেলে : ঘুম, ঘুম যার কাছ থেকে কিনতাম সেতো মারা গেছে, তাই আর ঘুমাতে হয় না ।

মেয়ে : হ্যা, ঠিকি বলেছো, আমিতো মরেই গেছি, কি করেছিলে এতো রাতে ?

ছেলে : বেলকণিতে বসে সিগারেট খাচ্ছি । মেয়ে : তুমি আবারও সিগারেট ধরেছো, সিগারেট ছারার জন্য আমার হাতে হাত রেখে কথা দিয়েছিলে, সে কথা ভুলে গেছো ?

ছেলে : আরে বোকা আমি কিছুই ভুলিনি, ঐই হাতটি আমাকে অনেক কথা দিয়েছিল, ও আমার অনেক কথা রাখেনি আর আমি মাত্র একটি কথা রাখিনি । মেয়ে : আমি কেমন আছি সেটা jiggasa করলে না ?

ছেলে : নিশ্চয় ভালো আছো, ভালো থাকার জন্যই তো আমার কাছ থেকে দূরে সরে গেছো । মেয়ে : হ্যা, ভালোই আছি, অনেক বেশি, ভালো আছি আমি, এতটাই সুখি আছি যা কল্পনাও করতে পারবে না ।

ছেলে : ভালোবেসে বিয়ে করেছো ভালো থাকাটাই স্বাভাবিক, আমি তো কখনো ভালোবাসতে পারিনি, সুখ দিতে পারিনি । মেয়ে : তুমি আমাকে জীবনেও বুঝলে না, আমি কিসের জন্য তোমার কাছ থেকে দূরে সরে গিয়েছি, সে শুধু আমিই জানি ।

ছেলে : যানি কেন আমার কাছ থেকে দূরে চলেছিলে, যানি কেন আমাকে দূরে ঠেলেছিলে, বুঝি ওতটুকু বোঝার ক্ষমতা আমার আছে, যাকে পাগলের মত ভালোবাসতাম তাকে বুঝবো না ।

মেয়ে : আজ কত তারিখ তোমার মনে আছে ?

ছেলে : দিন তারিখ মনে রেখে কি হবে ?

মেয়ে : আজ সেই দিন, পাঁচ বছর আগে তুমি আমাকে ভালোবাসি কথাটি বলেছিলে, তুমি সেই দিনটাও ভুলে গেছো ?

ছেলে : মানুষ মানুষ কে ভুলে যায়, নিজেই নিজেকে ভুলে গছি আবার দিন তারিখ মনে রাখবো কি করে ?

মেয়ে : তুমি মিথ্যে বলছো, তুমি কিছুই ভুলে যাওনি, আমি তোমাকে চিনি অনেক ভালোভাবেই চিনি, ভালোবেসেছিলাম এখনো ভালোবাসি, শুধু পরিস্থিতি দূরে যেতে বাধ্য করেছে, তুমি শুধু শুধুই আমাকে ভুল বুঝছো, আমি জানি আমি অপরাধ করেছি, কিন্তু আমার কিছুই করার ছিলো না, আমার বিয়ে করাটা জরুরি ছিলো, আর তুমি ঐই মুহুর্তে আমায় বিয়ে করতে পারতে না ।

ছেলে : তুমি তো আমাকে একটি বারের জন্যও বলতে পারতে, আমার মনের কথা যদি তুমি বুঝঝতে পারতে তাহলে মরে গেলেও আমাকে ছেরে যেতে না ।

মেয়ে : পারলে ক্ষমা করে দিও, তুমি আমার জন্য কতটুকু কষ্ট পাও তা হয়তো আমি জানি না কিন্তু এখনো আমি তোমার জন্য কষ্ট পাই, ভালো থেকো ।

ছেলে : তোমাকে ভালোবেসে জীবনের সবকিছু হারিয়েছি, তোমার দেওয়া সপ্ন, তোমার দেওয়া আশা আর আমার ভাঙ্গা সপ্নগুলো, তখনো চেয়েছি ভালো থাকো আর এখনো চাই ভালো থাকো, যার কাছে তুমি সুখ দেখেছো তাকে সুখি কর । তবে একটি কথা, সেদিনও বলেছি আজো বলেছি আমার মতো ভালো তোমাকে আর কেউ বাসতে পারবে না ।

গল্পের বিষয়:
ছোট গল্প

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত