অপেক্ষা

অপেক্ষা

–তুমি আবারও সিগারেট ধরেছো,তুমি না বলে ছিলে আর কখনো সিগারেট খাবে না ?? পেছনে দাঁড়িয়ে কেউ বলছিল, তবে কথাটা খুব পরিচিত মনে হচ্ছে,, পেছন ফিরলাম লোকটার মুখের দিকে তাকাতেই হাতে থাকা সিগারেট টা পড়ে যায়,, খুব আর্শ্চয্য হয় এত বছর পর তাকে আবার দেখতে পাবো কখনো ভাবিনি,,

–কি বলব ভেবে পাচ্ছি না,,, আমি বুঝতে পারছি না আমার এখন কি বলা উচিৎ বা কি করবো। সজোরে একটা চর মারতে খুব ইচ্ছে করছে,,,, কথা বলতে পারছি না রাগে ঘ্রিনায় দু’চোখ দিয়ে অশ্রু চিবুক স্পর্শে গড়িয়ে পড়ছে,,,,
–কি,, খুব রাগ হচ্ছে তাই (মেয়েটা আবারও বলে) নিজেকে সামলে খুব কষ্ট করে বললাম,,

–কেমন আছো,,
–হুম,,ভাল মুখ ফিরে নিদীর দিকে ঘুরে আর একটা সিগারেট ধরালাম…
–তুমি কেমন আছো..? (মেয়েটা)
—দেখতে তো পারছো,,
—আমার উপর কি এখনো রেগে আছো..??
–মেঘলা তুমি হয়ত ভুলে গিয়েছো,,, সবার উপর রাগ করা যায় না,,, যারা খুব কাছে হয় শুধু তাদের উপরেই আমাদের অভিমান,রাগগুলো থাকে?

—এখন আমি তোমার কাছে পর তাই না??
–তুমি কি আমায় এসব বলার জন্য ডেকেছো,, যদি তাই হয় তাহলে আমি আসি,, আমার কাজ আছে??
–পালিয়ে যাচ্ছো,,,??
-হাতা থাকা সিগারেট এ একটা লম্বা টান দিয়ে,, মেঘলার দিকে ঘুরে
–হাহাহ,,ভুলে গিয়েছো,,অতিতের আগের কথাগুলো। তুমি ভুলতে পারো কিন্তু আজও আমায় ঘুমতে দেয় না তোমার কথা গুলো না কেমন জানি বার বার কানে বেজে উঠে,,,,আচ্ছা মেঘলা তোমার কি মনে আছে??

–কি (নিচু হয়ে)
–তুমি আমায় বলেছিলে,,হাতে থাকা সিগারেটা তার দিকে এগিয়ে আমি কেনো এটা ছারতে পারি না??
–হুম,,কিছু বল নাই মুখ ঘুড়িয়ে হাসতে তুমি??
–ঠিক,, সেদিন বলতে পারি নাই,, কিন্তু আজ বলছি সবাই আমার সাথে বেঈমানি করলেও এইটা করিনি,, দেখো তুমি আজ অন্য কারও হয়ে গিয়েছো, অন্যের বুকে আজ তোমার ঠিকানা কিন্তু দেখ আজও এটা আমার হাতে এখনো ছেড়ে যায়নি. ।

–(চুপ হয়ে আছে কোন কথা বলছে না)
–সিগারেট মানুষের জীবন নিয়ে খেলতে পারে কিন্তু কখন কারও সাথে বেঈমানি করে না,,,..?
–আমায় কি ক্ষমা করা যায় না??

মেঘলা কথা শুনে খুব হাসি পাচ্ছিল,,বেশ কিছুক্ষন হাসলামও আমি তো এই দিনটির জন্যই বেচে আছি, আমি দেখব মেঘলার চোখে জল,,

আমি-মেঘলা তোমার কি মনে আছে,,একদিন তোমায় বলেছিলাম তুমি এসে আমার কাছে মাফ চাইবে,,, চোখের জলে তোমার চিবুক ভেসে যাবে দু’হাত দিয়ে তুমি ক্ষমা চাইবে আমার কাছে,, just একটু ক্ষমার জন্য।।।

–প্লিজ,, রাজ আমাকে ক্ষমা করে দেও,, আমি মানছি আমার ভুল হয়েছে প্লিজ ।।
–ক্ষমা,, হাহাহ,, আচ্ছা ঠিক আছে কিন্তু একটা শর্থ আছে??
–কি, বল তুমি যা বলবে আমি তাই করব আমার আর পারছি না, নিজের অপরাধ প্রতিদিন আমায় কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে। (খুব তাড়াহুড়ো করে)
–পারবে আমার সেই দিনগুলো ফিরিয়ে দিতে,, চোখের জলের প্রতিটা দাম দিতে পারবে (উচ্চ স্বরে)
–(মাথা নিচু করে দাঁড়িয়ে আছে)
–হাহাহ,,, জানতাম তুমি পারবে না,,

মেঘলা তুমি হয়ত ভুলে গিয়েছ, যে কথাটা তুমি প্রায়ই আমায় বলতে যখন আমাদের ঝগড়া হত আর তুমি রাগ করতে, যখন তোমার রাগ কোনভাবেই কমাতে পারতাম না নিরাশ হয়ে যেতাম তখন তুমিই ফিরে আসতে আর বলতে যাকে ভালবাসা যায় তার উপর কখনো রাগ করা যায় না,,, এটা তো আমার অভিমান তুমি বুঝ না পাগল একটা।।। এখন মেঘলার দো’চোখ বেয়ে অঝরে অশ্রুজল গড়িয়ে জমিনে পড়ে,,, কিছু বলতে পারছে,, আর বলবেই বা কি হাহাহ,,,,

আমি–তোমার উপর আমার কখনোই রাগ ছিল না,, কিন্তু হঠাৎ তুমি ক্ষমা চাইছো কেন?তাও আবার এত বছর পর???

–তোমাকে দেওয়াকে কষ্টগুলো আজ আমার মেয়ে চোখেও দেখেছি??আমাকে পারলে ক্ষমা করে দিয়ো!!
–ভুলটা আমার, ভুল মানুষকে ভালবেসে ছিলাম,ভাল থেকো!!!

নিজের মত করে হাটতে লাগলাম অবশ্য পেছন থেকে অনেক বার মেঘলা ডেকেছে, তার ডাকে সারা দেয়নি… শুধু চোখের জল গুলোকে আটকিয়ে রাখতে পারিনি,,, আজ হয়ত রাত কাটবে নির্ঘুমে সারা রাত নিকোটিন এ হয়ত সুখ খুজে বেড়াবে রাজ,,,,তার অজানায় রাত কিভাবে যাবে হয়ত বুঝতেও পারবে না,,আজ যে খুব খুশি তার মনের ইচ্ছে পুরন হয়েছে ???

>>>যে তোমায় পাগলের মত ভালবাসে তাকে ছেড়ে কখন দূরে চলে যেওনা,, আজ নয় কাল তোমাকে তার স্মৃগুলো কাদাবেই,,
>যে সুখে তুমি হারিয়েছো সে সুখ একদিন তোমায় কাদাবে…ভাল থাকুক সকলের ভালবাসা….

গল্পের বিষয়:
ছোট গল্প

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত