কেন এমন হয়

কেন এমন হয়

রাত প্রায় ১১ টা।লেকের পাশের রাস্তা দিয়ে হাঁটছি। আমার কাঁধে ঝোলানো আমার প্রিয় গিটারটি। কোন এক প্রিয় মানুষের গিফট করা এটি।সাথে আমার ৫ বন্ধু। হটাত এক বন্ধু বলল…
-দোস্ত চল লেকের উপর ব্রিজটায় যাই,ওইখানে ওই ল্যাম্পপোস্টের নিচে বসে গান গাই আর আড্ডা মারি।
(প্রায় সময়ই ওখানে বসি)
-আমি বললাম চল।
কিছুক্ষনের মধ্যেই জমে উঠল আড্ডা ,সাথে সিগারেট আর গান তো চলছেই……
কখনো গিটারে সুর তুলে আবার কখনো বা বেসুরা গলায়।গানে গানে মাতিয়ে তুলছি পুরো এলাকা।।নানা ধরনের গান।কখনও কখনও একটু দূরে বসা কিছু ছেলে ও বেসুরা গলায় তাল মিলাচ্ছে আমাদের গানে।কখনও বা অন্য কোন আড্ডা বাজদের(আমাদের মতই আড্ডা দিতে আসা বন্ধু-বান্ধবদের দল) পক্ষ থেকে ডাক,

-ভাই আবার হবে…

কখনোবা ,

-ভাই আর একটা হবে……এইসব।।

তবে তখন সবচেয়ে বেশি গাচ্ছিলাম

মন তরে পারলাম না বুজাইতে রে……… গানটি।

গান আর আড্ডার ফাঁকে একবার মোবাইলে তাকালাম সময় দেখতে।সময় তখন ১২:৩০…২৩ সে জুন…
তারিখটা চোখে পরতেই বুকটা কেমন ছেদ করে উঠল। কেমন নিঃসঙ্গ একা লাগতে শুরু করল।কারন ৪ বছর আগে এই দিনেই আমারা একে অন্যকে ভালবাসতে শুরু করি।আমার প্রথম ভালোবাসা।যে ছিল আমার জীবনের সব।যাকে ঘিরে ছিল আমার পৃথিবী,আমার সব স্বপ্ন-সাধনা।আর গত বছর এইখানে বসেই আমারা আমাদের রিলেশনের ৩ বছর উদযাপন করি।। সেদিনও সাথে আমার বন্ধুরা ছিল,তারা এসেছিলো আমাদের শুভকামনা জানাতে।ঠিক ১২ টা বাজে আগে থেকে অর্ডার করে বানানো কেক কেটে শুরু করি আমাদের ভালোবাসার ৪র্থ বছর। সে তখন আমাকে নিজ হাতে তুলে দেয় আজ যে গিটারটি দিয়ে সুর তুলে গান গাচ্ছি সেই গিটারটি।বিশেষ দিনে বিশেষ মানুষের এক বিশেষ গিফট।আর আমি নিজ হাতে তার দুপায়ে নূপুর পড়িয়ে দেই আমার গিফট হিসাবে।সে বায়না ধরেছিল আজ সব বন্ধুর সামনে তাকে আবার আমার প্রপোজ করতে হবে নতুন করে।শোনাতে হবে গান।
আমি তাকে আমার বন্ধুদের সামনে আবার নতুন করে প্রপোজ করেছিলাম।তাকে শুনিয়েছিলাম তার খুব প্রিয় একটি বাংলা গান।

ভালোবাসবো বাসবোরে বন্ধু তোমায় যতনে……

সেদিন আমার মনে হয়েছিল তাকে ভালোবাসার জন্যই হয়তো আমার এই পৃথিবীতে জন্ম হয়েছে।তাকে সারা জীবন ভরে ভালোবাসলেও আমার ভালোবাসা শেষ হবেনা।আর সে তার ভালোবাসা দিয়ে আমায় জড়িয়ে রাখবে সারা জীবন।।

অথচ আজ ১ বছর পর আমি বড় নিঃসঙ্গ,একা।।সে আজ নেই আমার পাশে।আজ নেই তার ভালবাসা।সে আজ থেকেও আমার পর।সে আজ অন্য কারো।।সবার অগোচরে চোখ বেয়ে গড়িয়ে পড়ল দু,ফোঁটা অশ্রু জল।।

নিজেকে সামলে নিয়ে বন্ধুদের বললাম……
-অন্য একটা গান ধরব।।
তারা বলল,

কোন গান??
আমি তাদের কথার উত্তর না দিয়ে গাইতে থাকলাম।।

চলে গেছো তাতে কি?ভালোবেসে মরেছি,তুমি আছো হৃদয়ের আয়নায়……

আর ভাবতে থাকি কেন এমন হয়?কেন মানুষের ভালোবাসা একদিন নিঃশেষ হয়ে যায় চিরতরে?উত্তর খুঁজতে থাকি।কিন্তু উত্তর মেলেনা,হয়তো মিলবেওনা……

গল্পের বিষয়:
ছোট গল্প

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত