ঢংগী ব‌উ

:-খেতে আসো!!
:-আসছি!!
:-কই আসো না কেন?
:-আরে বাবা আসছি তো!!
:-এত লেট হচ্ছে কেন?
:-ধ্যাত!একটু লেইট তো হবেই!! :-বুঝতে পারছি?
:-কি-?
:-কেন আমার সাথে এমন করে কথা বলো?
:-কেমন করে বললাম?
:-ধমক দিয়ে!!
:-না না ধমক দেই নাই তো!
:-আমি ঠিক আন্দাজ করতে পারছি!!
:-কি-?
:-মিথ্যা বলছো? বিয়ের আগে বলতা কাছের মানুষের সাথে মিথ্যা কথা বলতে নেই।এখন তোআমি পর হয়ে গেছি তাই না??
:-আরে না না মিথ্যা বলি নাই তো!! আচ্ছা ঠিক আছে সেই সময় আস্তে করে ধমক দিয়েছি এখন খুশি তো?
:-এখন আস্তে করে দিয়েছ পরে বড় করে দিবে তাই তো:-না না সেটা তো মুখ ফসকে চলে আসছে আর হবে না!!
:-বুঝছি!এখন আমায় আর ধমক দিবে না অন্যজনকে পেয়ে গেছ তাকে দিবে তাই না??
:-ধ্যাত! ধমক দিলেও দোষ না দিলেও দোষ! মিথ্যা কইলেও দোষ না কইলেও দোষ!!
:-দেখছো!একটুতেই রেগে যাচ্ছ তারমানে আমায় তুমি আর ভালবাস না?
:- আবার! সবসময় এক কথা ক্যান বলো বলোতো? কোনো দোষ না করলেও ভালোবাসোনা ভালোবাসোনা করো
:- দেখসো! একটু আহ্লাদ করে বললাম ওম্নি তুমি রেগে গিয়ে কতো কথা শুনায়া দিলা ভালবাসলে এমন করতে পারতা?
:- ভুল হয়ে গেসেএখন বলো, আমি আবার কি করেছি যার জন্য তোমার মনে হচ্ছে আর আমি তোমাকে ভালবাসিনা!
:- কালকে তুমি আমাকে টিপ কিনে এনে দিসিলা
– হ্যাঁ দিসিলাম ত তুমি বায়না করেছিলে বলে
:- আমি বায়না করলেই তুমি দিবা! টিপ পরা মেয়েদের তুমি না পছন্দ করো না! তারমানে তুমি আমায় আর পছন্দ করো না।
:- এই না না! তোমার ইচ্ছা হইসিলো টিপ পরার তাইতো আমি এনে দিলাম আচ্ছা, নেক্সট টাইম থেকে আর টিপ এনে দিবো না
:- দেখসো! এই ভালোবাসো তুমি আমাকে! সামান্য টিপ চাইবো,তাও দিবানা!
:- তুমিই ত বললা,আমি টিপ পরা মেয়েদের পছন্দ করিনা তাই তোমাকে যেন টিপ এনে না দিই
:- আমি বললেই? আমার ইচ্ছার চেয়ে তোমার পছন্দ অপছন্দই বড়? তুমি আর আমাকে ভালোবাসো না
:- মাথা গুলিয়ে যাচ্ছে বিশ্বাস করো,তুমি আমায় ভুল বুঝতেসো আমি গুছিয়ে বুঝাতে পারতেসি না
:- আমি ভুল বুঝতেসি? হ্যাঁ, আমি ত খারাপ আমিই সবসময় ভুল বুঝি
:- উফফ আমি তোমাকে খারাপ বুঝাতে চাইনি তুমি ত আমার কলিজার টুকরা

:- হ্যাঁ, টুকরাই ত তা তোমার কলিজার বাকি টুকরাগুলার নাম কি? আমি ত শুধু টুকরামাত্র গোটাকলিজা হবার মতো সুন্দরী না ত আমি।
:-উফ!আমি সেভাবে বলিনি!
:-কিভাবে বলছো হুম!!
:-কলিজার টুকরা বলতে সবটা কলিজাই বোঝাতে চাইছি আরকি!!
:-অহ.এখন আমি বোঝিনা তাইতো ঠিক আছে আর কিছু বলতে হবে না।
:-চড়ুই পাখি রাগ করে না?
:-কি বললা তুমি? আমি কি?
:-চড়ুই পাখি!!
:-দুনিয়ায় এত দামিদামি পাখি থাকতে আমায় চড়ুই বললা কেন হুম?
:-আরে পাখি তো পাখিই!!আচ্ছা তুমি আমার ময়না পাখি এখন খুশি??
:- এইবার বুঝসি কেন তুমি আমায় এখন আর ভালবাসো না ময়না পাখি ত কালো ইনডিরেক্টলি আমাকেকালো বলতে চাচ্ছো তাইতো?
:- তুমি প্রত্যেকটা কথার উল্টা বুঝতেসো।
:-এখন তো উল্টাই বুঝবো তাই না?
:-আচ্ছা আমি তোমাকে অনেক ভালবাসি অনেক ভালবাসি এখন খেতে দাও অফিসের সময় চলে যাচ্ছে? আল্লাই জানে সামান্য ব্যাপারে এত্ত ঝগড়া বাপরে বাপ মাইয়া একাখান। নুসরাত নামের মেয়েরা এমনি ঝগড়াটে!!
:-কি বললা?
:-না কিছু না? আমি অফিসে যাচ্ছি বাই বাই।
:-আচ্ছা ভালোভাবে যেও কিন্তু বিকেলের খাবার টা দেওয়া আছে সময় করে খেয়ে নিও অন্যথায় ছেছ্যরামো।
:-আইচ্ছা মেডাম।
:-রানা শুনো?
:- হুম বলো?
:-উম্মমা!!
:-আরে বাপরে ফাইলিং কিস!!
:-মানে?🙁
:-কিছুনা বাই বাই!!😃
অতপর চললাম অফিসে তবে এমন মেয়েরা ঢংগী
হলেও অনেক ভালবাসতে যানে।

গল্পের বিষয়:
রোমান্টিক

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত