কে পারে ফোঁটাতে পাথরের বুকে ফুল

কে পারে ফোঁটাতে পাথরের বুকে ফুল

কে পারে ফোঁটাতে পাথরের বুকে ফুল
কে পারে জ্বালাতে হৃদয়ে রক্তে দ্রোহের আগুন
কে পারে প্রতি হিংসার দাবানল ছড়াতে
শুধু মাত্র মায়ের ভাষার মান রক্ষা কল্পে
একদিন, সেই দিন একুশে ফেব্রুয়ারি বাহান্নতে
এই বাঙ্গালি জাতি ফুটিয়েছিলো ফুল
গেঁথেছিলো মালা আপন রক্তে
রক্ত গোলাপে মাতৃভাষা করতে রক্ষা
প্রাণপণে দ্রোহের শক্তিতে কাঁপিয়েছিলো
কাপুরুষের সিংহাসন
দিয়েছিলো সেদিন প্রাণ বাংলার অকুতোভয় সন্তান
হৃদয়ের রক্ত দিয়ে গেঁথেছিলো মালা
লাল গোলাপের
করেছিলো সংহত অবিনাশী ভাষা
চিরঞ্জীব শহীদ বরকত সালাম জব্বার শফিক
সেই থেকে শুরু
এই জাতি মানেনি পরাভব করেনি মাথানত
কারো কাছে কোনোদিন
মাতৃভাষার জন্য যে বীজ হয়েছিলো সেদিন বপন
তারই সুত্র ধরে শৃঙ্খল ভাঙ্গার গান শিখিয়েছিলেন
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
সাড়ে সাত কোটি বাঙালি সেদিন একাত্তুরে
লক্ষ প্রাণের রক্তে গাঁথা মালার বিনিময়ে
একদিন এনেছিলো কাঙ্খিত স্বাধীনতা
তারপর একুশে ফেব্রুয়ারি একদিন
বেধেছে পৃথিবীকে মাতৃভাষার ঐশ্বর্য বন্ধনে
আর বিশ্ব পেয়েছে একুশকে যারা যার
মাতৃভাষা রক্ষা করার গৌরব
জয় হোক মাতৃভাষার
জয় হোক মা, মাতৃভূমির
এই প্রত্যাশায় আজকের অঙ্গিকারে
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে
করি আলিঙ্গন পরম শ্রদ্ধায়।

গল্পের বিষয়:
কবিতা

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত