অন্তত কেউ একজন

অন্তত কেউ একজন

সকাল বেলায় সূর্যের প্রথম আলো
যখন খেলে যায় জমাট বাঁধা
জানালার পর্দায় ….
কেউ গরম চা হাতে
জড়িয়ে ধরে ঘুম ভাঙাক
এতটা আমি চাইনি ..
আমি শুধু চেয়েছিলাম
অন্তত কেউ একজন,
অনেকটা আবেগ রেখে
কানে কানে বলুক,
” অনেক তো ঘুমিয়েছো,
আর কত, এবার ওঠো। ”

ঘোর দুপুরে বেঘোর জ্বরে
কেউ উৎকন্ঠা নিয়ে
চোখ জলে একাকার, বসে
আমার মাথায় জল ঢালুক..
এতোটা আমি চাইনি।
আমি শুধু চেয়েছিলাম
অন্তত কেউ একজন কপালে হাত রেখে
প্রচন্ড অনুযোগ নিয়ে বলুক
” ইস .. জ্বরটা এখনো কমেনি,
তুমি যে কি না! নিজের প্রতি একটু
খেয়াল রাখতে পারো না। ”

মায়া মাখা সন্ধ্যে বেলা
যখন পশ্চিম আকাশের
রংয়ের হোলি, খেলা করে
আমার শরীরের শিরায় শিরায়
কেউ এসে ভাসিয়ে নিয়ে যাক
আমায় প্রেম সাগরে…
এতটা আমি চাইনি
আমি শুধু চেয়ে ছিলাম,
কেউ অন্তত পাশে বসে
মন খারাপে, কাঁধে মাথা দিয়ে
নিজের চুইয়ে পরা কষ্ট গুলো
লাঘোব করুক আলগোছে …
কেউ একজন
অনেকটা অধিকার নিয়েই বলুক
” সন্ধ্যার মন খারাপে,
আমি শুধু তোমার কাঁধ
খুঁজে পেতে চাই ”

কিংবা নির্ঘুম চাঁদের রাতে
তারার মেলায় আমার বিছানায়
ফুল ঢেলে, কেউ আমায়
আদিম সুখের উল্লাসে
ভাসিয়ে নিয়ে যাক
এতটা আমি চাইনি …
আমি শুধু চেয়ে ছিলাম
কেউ অন্তত জানুক,
রাত ভর কতটা বিষন্নতা নিয়ে
জীবন আঁকি আমি
আকাশের গায়….

গল্পের বিষয়:
কবিতা

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত