কোন এক ফাগুনে

কোন এক ফাগুনে

কোন এক ফাগুনের….
জোছনাময় রাতের বসন্ত বাতাসে দাড়িয়ে
হাতে হাত রেখে বলেছিলে আমায়
চল পালিয়ে যাই!!!!

অভিমানী আমি…
হাতটি ছেড়ে বিনা বাক্য ব্যয়ে
নীরবে, নিভৃতে বাসায় চলে আসি-
তুমি!!! মেনে নিতে পার নি?

কত বছর হয়েছে!
বলতে পারবে কি? আমি পারবো!
সেকেন্ড, ঘণ্টা, মিনিট, দিন, মাস, বছর।
এক সেকেন্ডের জন্য ভুলি নি।

আজও ভুলি নি….
রাগে লাল অগ্নিমুখ তোমার-
কথা বলো নি আর কোন দিন…
অভিমান আর ভাঙ্গেনি।

আজও ফাগুন আসে-
রক্ত লাল ফুলে গাছগুলো ছেয়ে যায়।
মনে হয় বনে আগুন লেগেছে
কোকিল মনের সুখে গান গায়।

মৌমাছিরা গুন গুন করে সুর তোলে
ফুলে ফুলে উড়ে বেড়ায়, ঘুড়ে বেড়ায়
কোকিলের মিষ্টি কুহুতানে মন মাতায়-
মৌমাছির গুঞ্জরণে সুরের মূর্ছনায়।

ফাগুনে আজও কবিগন,
কবিতা লিখে, গান লিখে
ফাগুনের নানা রঙে
মানুষের হৃদয় হরণ করে যায়।

দক্ষিণা বাতাসে শিহরিত হয় তনু-মন
ভাবি তোমার কথা, ভুলতে পারি না-
কি করে ভুলি, স্মৃতি মধুময় ক্ষণ
আনমনা হয়ে বার বার নস্টালজিয়ায় হারিয়ে যাই।

কারো ভাবনা, ভালোবাসায় আর নেই
প্রতি বছর ফাগুন আসবে
কোকিলের গানে, মৌমাছির গুন গুন সুরে,
প্রকৃতি ফাগুনকে করবে বরণ
আমি অবচেতন মনে অতীত স্মরণে
আনমনা হবো বার বার।

ফাগুনে এলেই, মনে পড়ে তোমায়-
কেমনে ভুলি বলো? ভুলতে পারি না!!!
চেনা ছোঁয়া খুঁজে ফিরি অবিরাম-
অনুভবে, ভালোবাসায় থাকো তুমি
ভুলিনা, ভুলতে পারিনা
স্মৃতিতে সাঁতার কাটি সব সময়।

গল্পের বিষয়:
কবিতা

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত