শেয়াল ও কাক

শেয়াল ও কাক

এক কাক এক টুকরো মাংস চুরি করে এক উঁচু গাছের ডালে গিয়ে বসল। মাংসের টুকরোটা তার দু’ ঠোঁটের মাঝখানে ধরা।

এই সময় এক শেয়াল তাকে দেখতে পেয়ে এক শয়তানী ফন্দী আঁটল। উদ্দেশ্য, ঐ মাংসের টুকরোটা হাতিয়ে নেওয়া।

“কাকের চেহারাটা কি সুন্দর!” গাছতলায় এসে কাককে শুনিয়ে শুনিয়ে খুব অবাক হওয়ার ভান করে বলল সে, “যেমন দেখবার মত তার শরীরের গঠন, তেমন চমৎকার তার গায়ের রং।

শুধু গলার স্বরটাও যদি তার চেহারাটার মত একইরকম চিকণ হত, অনায়াসে তাকে পাখীদের রাণী বলা যেত।”

মুখে যখন সে এই সব ছল-চাতুরীর কথা বলে যাচ্ছিল, তখন আসলে তার মন পড়েছিল ঐ মাংসের টুকরোটার প্রতি।
.
কাক-এর দেমাক ত এই তোষামুদে প্রশংসায় খুব ফুলে উঠল। সে এখন চিন্তায় পড়ে গেল তার গলার আওয়াজের দুর্নাম নিয়ে।

তার মনে হল সব্বাইকে জানিয়ে দেওয়া দরকার যে তার গলার স্বর কারো থেকে খারাপ নয়। সে এক বিরাট আওয়াজে কা করে ডেকে উঠল।

আর, টুপ করে মাংসটা তার মুখ থেকে খসে পড়ে গেল। শেয়াল সঙ্গে সঙ্গে মাংসটা তুলে নিল আর, কাককে ডেকে বলল,

“ওহে কাক সুন্দরী, তোমার গলার স্বর যথেষ্টই ভাল, শুধু, বুদ্ধিটাই নেই তোমার!”
.
মোরাল: তোষামোদে যে ভুলে যায় সে লোক বোকা, কারণ তোষামোদ-এর উদ্দেশ্য কখনো ভাল থাকে না।

গল্পের বিষয়:
শিক্ষনীয় গল্প

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত