প্রিয় বাবা

প্রিয় বাবা

প্রিয় বন্ধুরা, আমি তোমাদের নতুন বন্ধু,আমি এই প্রথম কোন আ্যপে গল্প দিয়েছি,আমি প্রথমে ধন্যবাদ জানাই গল্পেরর ঝুড়িকে, আশা করি সকল বন্ধুরা পড়বেন এবং গল্প টা কেমন হল অবশ্যই মন্তব্য করবেন,,,,,,,,,,,,,,, তো আমার গল্পের প্রধান, আলোচ্য বিষয় হচ্ছে কু- সংস্কার যথা: যৌতুক।

কোনো এক ভদ্র লোক একটি প্রতিষ্ঠানে ছোট খাটো একটি পদে চাকরি করে। গত মাসে সে তার বড় মেয়েকে বিয়ে দিয়েছে প্রায় ৬ লক্ষ টাকা খরচ করে। আবার ইতিমধ্যে ইফতারি দিয়েছে প্রায় ১৫, ০০০/- টাকার। একটু পরে মেয়ের ফোন,,,,,,,,,
_বাবা কেমন আছো???
_ হ্যঁ মা ভালো আছি,তুই ভালো, আছিস তো???
_আছি বাবা,,,,
_এই ভাবে বলছিস কেন? তোর শ্বশুর -শ্বাশুরি খুশি হয়েছে তো?
_ ওরা কিছুু বলেনি ফুফু(স্বামীরফুফু) বলেছে ইফতার নাকি কম হয়েছে, , ,,,
_তখন বাবা চোখে পানি টলমল করছিল,,,,,, আচ্ছা মা বলছি যে পরের বার থেকে বাড়িয়ে দিবো।
_ বাবা শুন,,, তুমি আমাদের বাড়িতে ঈদের কাপড় দিবে না?
_ হ্যঁ মা দিবো তো,,,, কেন?
_ তুমি কাপড় দিও না,, খালা(স্বামীর খালা) বলেছে যে কাপড় দিলে নাকি সবাই পছন্দ করবে না,,,, তার চেয়ে টাকা দিয়ে দিলে সবার হয়ে যাবে।
_ তো মা কত টাকা?
_ বাবা,,, ৩০,০০০/- টাকা বলছে।
_ আচ্ছা মা তুই চিন্তা করিস না,,,,,,আমি এখনো বেঁচে আছি।
বাবা বুঝতে দেরী হল না এতক্ষনে মেয়ের চোখে অনেক জল গড়িয়ে পড়তেছে,,,
_ আচ্ছা,,, বাবা রাখি এখন।
সন্ধ্যায় ছোট ছেলে নামাজ পড়ে আসলো,,,,
_ বাবা আপনি আছেন, ,,,,,,,
_ হ্যঁ আছি তো,, কিছু বলবি,,,,,,,
_ হ্যঁ ঈদের পর ২য় সপ্তাহে সেমিস্টার ফাইনাল,আমার টিউশনির কিছু টাকা আছে,,

আপনি ২০,০০০/- দিলে হবে।
_ আচ্ছা বাবা দেখি,,,,, তুই খেয়ে ঘুমিয়ে পড়।
_না বাবা লেট হলে পরীক্ষা দিতে পারবো না।
ঈদের পর, আবার কোরবান মেয়ের বাড়ির জন্য গরু দিতে হবে কমপক্ষে ৫০,০০০/- টাকা লাগবে,, আবার নিজের জন্যও একটা লাগবে। এখানে শেষ নয়,,, আরো রয়েছে মেয়ের বাড়িতে দেওয়া বিভিন্ন মৌসুমে বিভিন্ন আয়োজন। সব চিন্তা করতে করতে না খেয়ে শুয়ে পড়েছে,।
এদিকে সাদিয়ার মা অনেক জিজ্ঞেস করছিল,,,,,,, লোকটি কিছু না বলে শুয়ে পড়েছে,,,,,,,।
শুধু মাথায় একটা বিষয় কাজ করছে,,,,, টাকা!টাকা!টাকা!আর সুখ।
এভাবে রাত ১২ টা সময়। সবাই কান্না কাটি করছে। ছোট মেয়ে আর তার প্রিয় স্ত্রী সব চেয়ে বেশি কাদঁছে,, এর মাঝে লোকটি শুনলেন বড়মেয়ের কাছে খবর পৌঁছেছে তার প্রিয় বাবা পৃথিবী ত্যাগ করতে আর বেশি ক্ষণ সময় নেই,, তারমধ্যে সবার দিকে চেয়ে থাকলেন ঠিক ২মিনিট পর লোকটি মারা যান।,,,,,,,,,,,,,,,,, , ,,,,,,,,
এভাবে হারিয়ে যাচ্ছে তার মতো অনেক বাবা।আর বাবার স্নেহ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শতশত ছেলেমেয়ে। হয়ত অনেকে জানে না তাদের বাবার মৃত্যুর রহস্য কি?
আপনারা বলেন,,,,,, একজন মধ্যবিত্ত বাবার পক্ষে এত কিছু করা সম্ভব! তারা বোঝেনা কেন? কেনওবা বিয়ে নামে শোষণ করে?,,,,,,,,,
লিখতে গিয়ে নিজের চোখে জলে আসে,,,,, এভাবেপ্রতিনিয়ত আমরা হারাচ্ছি আমাদের প্রিয় বাবাকে,, ,,,,,, আসুন আমরা সবাই সচেতন হই এবং যৌতুক নামক সামাজিক মারাত্মক ব্যধিকে ধ্বংস করি।।।।।।।।।
সবাইকে ধন্যবাদ,, ,,,,,,,,,,,,,,,,,।

গল্পের বিষয়:
শিক্ষনীয় গল্প

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত