ছোট্ট একটা প্রেম কাহিনী

ছোট্ট একটা প্রেম কাহিনী

সুজন মনে মননে ভাবতে লাগলো এমন জল্লাত মেয়ে কারো কপালে নাহ জোটে তানিয়া পানি এনে সুজনকে খেতে দিলো,,, সুজন পানি খাওয়া শেষ করে বললো,,,
সুজন: কলেজে যান নাহ কেন,,,,
তানিয়া: কিভাবে যাবো,,, তুমি যা করলে,,,
সুজন: কি করলাম,,,
তানিয়া: কি করো নাই,, আমি কতটা কষ্ট পাইছি জানো,,,,
সুজন: আমি যে প্রতিদিন মার খেতাম তার বেলায়,,,,,
তানিয়া: যা হইছে ভালোই হইছে,,, এবার বের হও বাসা থেকে,,,,,
সুজন: যদি না বের হই তখন,,,
তানিয়া: দেখারচ্ছি মজা,,,
সুজন: এই না না আমি বের হচ্ছি,,,,, কাল কলেজে এসো, তানিয়া: ঠিক আছে,,,
সুজন চলে আসলো ভাবতে লাগলো তানিয়াকে মনের কথা বলবে কি করে,,,,, পরের দিন তানিয়া কলেজে আসলো,, তানিয়াকে আজ অন্যরকম লাগছে,, সুজন দূর থেকে তানিয়াকে দেখে অবাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে,, কে এ মেয়ে,, আজ সুজনের অনেক ভাল লাগছে,, মুখে হাসি,,,, তানিয়ার ডাকে সম্মতি ফিরলো সুজনের,,
তানিয়া: কি হয়েছে,, কি দেখো,,,,
সুজন: ঐ মেয়েটা কি সুন্দর।
তানিয়া: কোন মেয়েটা,,,
সুজন: তোমার পিছনের মেয়েটা,,,
তানিয়া: তোর একদিন কি আমার একদিন,,,
সুজন ভয়তে দৌড় দিলো,, তানিয়া পিছু পিছু,,,, সুজন দাড়াতেই তানিয়া কিছু একটার উপর বেধে সুজনের গার উপর পড়ে গেলো,,,,
সুজন নিচে তানিয়া উপরে,, সুজন তানিয়ার হাতের কেনো আঙ্গুলের নকটা মুখ দিয়ে কেটে দিলো,,,
তানিয়া: এই কি করলা এটা,,,
সুজন: কি করলাম, মানে আমার সুন্দরি বন্ধুর উপড় কারো নজর নাহ পড়ে।।।
তানিয়া: তাই,,,
সুজন: হুম।
তানিয়া: পড়লে আমার উপড় পড়বে তাতে তোমার কি?
সুজন: তা ও ত ঠিক,,, ওকে সরি।
তানিয়া: ইটস ওকে।
সুজন: আমার গায়ের উপর শুয়ে থাকবেন নাকি উঠবেন,,,,,
তানিয়া লজ্জা পেল,, তারপর উঠে গেল,,, দুজনের সম্পকটা খুব ভালই যাচ্ছিলো,,কেউ কাউকে বুজতে দিতো নাহ তাদের ভালবাসার,,,,,সুজন কোনো মেয়ের সাথে কথা বললে সুজনকে আচ্ছামত দিতো বকা মার ফ্রি,, সুজন জিঙ্গস করলে বলতো, ও এসব পছন্দ করে নাহ,,,, সুজনকে একা সাড়ে নাহ,, কলেজে সবসময় একসাথে থাকতো, ক্লাসে বসতো,,, সুজন তানিয়াকে রাগানোর জন্য সব সময় উল্টা করতো আর তখন তানিয়া সুজনকে দিতো ধোলাই,,,,,,,
সবসময় দুজন দুজনের খেয়াল রাখতো,, ঝগড়া খুনসূতি লেগেই থাকতো,,,,তানিয়া হঠাৎ করে সুজনকে ফোন দেয় কিন্তু ফোনটা ধরে নাহ,, তানিয়া অনেক টেনশনে আছে,,, সুজন তানিয়ার ফোন দেখে তানিয়াকে ফোন দিলো,,, তানিয়া ফোন রিসিব করতেই,,,,,
তানিয়া: কুত্তা কই ছিলি,,,
সুজন: পাশের ঘরে,,,
তানিয়া: পাশের ঘরে নাকি অন্য মেয়ের সাথে ছিলি,,,,
সুজন: কি বলছিস এসব,,,,তোর কি হয়েছে বলবি,,,,
তানিয়া: কিছু নাহ,,,
সুজন: এমন ভাবে কথা বলছিস কেন,,,,
তানিয়া: তোর জন্য খুশির খবর আছে,,,,
সুজন: কি খুশির খবর,,,
তানিয়া: আমার বিয়ে,,,
সুজন এটার জন্য প্রস্তুত ছিলো নাহ,,, পায়ের তলার মাটিটা সরে গেলো,, অজান্তেই চেখের কোনে পানি চলে আসলো,,
তানিয়া: কি হলো চুপ কেন,,,
সুজন: কই না ত,,, কবে বিয়ে তোর, ছেলে কি করে রে,,,
তানিয়ার মনটা খারাপ হয়ে গেলো,,,,
তানিয়া: কাল বিয়ে,
সুজন: কি বলছিস কাল বিয়ে,,
তানিয়া : হুম,,,
সুজন: তাহলে বেশ মজা করা যাবে

তানিয়া ফোনটা কেটে দিয়ে কান্না শুরু করলো,,,
সুজনও নিরবে কান্না করতে লাগলো,,, তানিয়া ভাবতে লাগলো সুজন কি আমাকে ভালবাসে নাহ,, কখনো কি বুজাইতে পারিনি আমি,, পরেরদিন তানিয়াকে সাজানো হলো কিন্তু সুজনের কোনো খোজ নেই এখনো,, তানিয়া ভাবলো সুজনের কিছু হয় নাই ত,, ঠিক তখনি, ফোন আসলো,, যেটার জন্য তানিয়া প্রস্তুত ছিলো নাহ,,, সুজন আর নেই,, তানিয়া নিজের কানকে বিশ্বাস করতে পারছে নাহ,,,,,, কান্না করতে করতে দৌড় দেয়,,,,
তানিয়া সুজনের পাশে বসে পড়লো, শুয়ে আছে নিশ্চুপ হয়ে,,, তানিয়া সুজনের মাথাটা বুকের সাথে চেপে ধরে কান্না শুরু করলো আর বললো,, সুজনন উঠ না তুই প্লিজ,, আমাকে একবার বল ভালবাসি,,, আমি তোকে খুব ভালবাসি,,, বল না একবার ভালবাসি,, তানিয়ার হাতে একটা ডাইরি দিলো, তানিয়া খুললো চর প্রথম পৃষ্ঠায়,, লেখা, আমার সুইট পাগলি তানিয়া তোকে অনেক বেশি ভালবাসি, জানি নাহ কখনো বলতে পারবো কি নাহ,,তুই যদি আমাকে নাহ ভালবাসিস,,,আমি কি তোর যোগ্য হতে পারবো,, জানি ভালবাসায় যোগ্য লাগে নাহ,, দুটো মনের মিলন হলেই হয়,,,,পরের পাতা েথেকে শুরু তানিয়া আমি তোর হাসিটা দেখার জন্য পাগল,, তোর হাসিটাই ছিলো আমার সুখ, প্রতিদিন স্যার এর বকা খেতাম, আর তখন তুই হাসছিস তখন আমি সব ভুলে যেতাম,,,,, স্যার যেদিন তোকে বকা দিলো, তোর কান্না দেখে নিজেকে ঠিক রাখতে পারি নাই, কষ্টে বুকটা ফেতে গেছিলো,,, তুই যখন আমার বুকে পড়েছিলি সেইদিন ভেবছিলাম তোকে সারাজীবন বুকে রেখে দি,, কিন্তু তা আর হলো নাহ,, তুই অন্য কারো হবি তা আমি দেখতে পারবো নাহ,, তাই চলে গেলাম,,,, খুব ভালবাসি রে পাগলি তোকে,, কখনো আর শোনা হবে নাহ আই লাভ ইউ,,,তানিয়ার কান্নাটা বেরে গেলো ,, সুজন উঠ না উঠ,, আই লাভ ইউ,বলছি ত,,,,
কি ভাবছিস তুই আমাকে একা কষৃট দিয়ে চলে যাবি তা আর হবে না,,, আমি যে তোকে ছাড়া কাউকে ভালবাসতে পারবো নাহ,,,,, তানিয়া ও চলে গেল সবাইকে ছেড়ে সুজনের সাথে না ফেরার দেশে,,,,,,,

…………………………………………..সমাপ্ত………………………………………

গল্পের বিষয়:
ভালবাসা

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত