তুমি ছাড়া ইম্পসিবল

তুমি ছাড়া ইম্পসিবল

-এইযে শুনছেন??(আমি)
– জি আমাকে বলছেন? (নিলা)
– হুমম আপনাকেই বলছি?(আমি)
– জি বলেন কি বলবেন?(নিলা)
– আমি না আসলে,,,,,,,,(আমি)
– যা বলবেন ডিরেক্ট বলেন ঘুরিয়ে পেচিয়ে কথা আমি পছন্দ করি না। (নিলা)
– আমি আপনার ওপর ক্রাশ খাইছি?(আমি)
– তাই নাকি? আপনি কি আমাকে চিনেন?(নিলা)
– হুমম চিনি তো এফবিতে তো প্রায়ই কথা হয়?(আমি)
– কি নাম আপনার?(নিলা)
– সানভি?(আমি)
– তা সানভি নামের কোন ছেলে তো আমার ফ্রেন্ড লিস্ট এ নাই?(নিলা)
– আমি তো আপনার ফলোয়ার।(আমি)
– শুনেন একটা কথা বলি, আমি ওইসব ক্রাশ এ বিস্বাস করি না। এরপর আর আমার আশে পাশে আসবেন না ওকে?(নিলা)
(বলেই চলে গেল)
আমিও চলে আসলাম। ওহ পরিচয়টা দেই। আমি সানভি আহমেদ শাকিব। ইন্টার ফার্স্ট ইয়ারে পড়ি। আর একটু লেখালিখি করি?
আর যার সাথে কথা বলছিলাম ও হলো নিলা। আমার ক্রাশ ওকে ফেসবুকে দেখেছিলাম। ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট ও দিসিলাম বাট ফলোয়ার হয়ে ঝুলে আছি?
দেখি কি হয়? পাশেই ওর বাড়ি হেটে গেলে ২০ মিনিট এল রাস্তা তবে কেউ কাউকে চিনি না কারন ও এখানকার বাসিন্দা না কিছুদিন হলো এখানে এসেছে?
,
পরেরদিন আবার সেই গাছটার নিচে দাড়িয়ে আছি যেখানে কালকে দেখা হয়ে ছিল।
কিছুক্ষণ পর দেখলাম আসতাছে। আমিও দাড়িয়ে রইলাম।
আমাকে পাশ কাটিয়ে যাবে তখন বললাম,
– দাড়ান তো একটু কথা আছে?(আমি)
– কি কথা আমার সময় নেই? (নিলা)
– সময় না থাকলেও আপনাকে শুনতে হবে?(আমি)
– আচ্ছা তারাতারি বলেন কি বলবেন?(নিলা)
– আমি আপনাকে ভালোবাসি?(আমি)
– আর কিছু?(নিলা)
– নাহ। ওহ হ্যা আমার উত্তর টা।(আমি)
– আই হেট ইউ?(নিলা)
– আচ্ছা যান কোথায় যাবেন?(আমি)
নিলা চলে গেল আমিও চলে আসলাম।
,
নাহ অনেকদিন কলেজ যাইনা আবার যাবো কালকে থেকে।
বাসায় এসে ঘুমিয়ে পড়লাম। সকালে উঠে ভদ্র ছেলের মতো কলেজ গেলাম। নিলাকে দেখতে আর দাড়ালাম না।
কলেজে যেয়ে ফ্রেন্ডদের সাথে আড্ডা দিতাছি তখন মেয়েটা আসলো,
– ফলো করতে করতে এখানেও চলে এসেছেন? (নিলা)
– পাগল নাকি আমি এই কলেজ এ পড়ি এখানে আসতে আপনাকে ফলো করতে হবে কেন?(আমি)
– তোমাদের মতো ছেলেদের না আমি ভালো মতই চিনি? বজ্জাত ছেলে কোথাকার আরো কত কি?(নিলা)
বলেই চলে যেতো লাগলো,
– রাগলে কিন্তু তোমাকে দারুন লাগে?(আমি)
নিলা রাগে ফুসতে ফুসতে চলে গেল?
আমি ভাবতাছি আমাকে এভাবে ঝাড়লো কেন?
ভালোই হইছে এখন আর রাস্তায় দাড়িয়ে থাকতে হবেনা ,কলেজে আসলেই হবে?
পরেরদিন কোনো দেখাই নাই নিলার। তারপর দিন কলেজ আসলো আমার কাছে এসে বললো,
– সরি, আসলে সেদিন মুড ভালো ছিলোনা তাই তোমাকে ঝেড়েছি?(নিলা)
– আচ্ছা।(আমি)
– আমরা কি বন্ধু হতে পারি?(নিলা)
– আরেকটু বেশি হওয়া যায়না। (আমি)
– মানে??( নিলা)
– মানে আর কি আমার গার্লফ্রেন্ড হয়ে যাও।(আমি)
– কি ভাবছো কি তুমি একটুু কথা বলসি তাই তোমার গার্লফ্রেন্ড হতে হবে?(নিলা)
– আচ্ছা এখন না হলেও চলবে ভালো বন্ধু হতে তো পারি?(আমি)
– হুমম তাতো পারিই। তবে যাস্ট ফ্রেন্ড? (নিলা)
– হুমম। (আমি)
তারপর চলতে লাগলো বন্ধুত্ব আর আমার লুকিয়ে ভালোবাসা। আর বলি নাই তবে এখনো ভালোবাসি।
তারপর কেটে গেল কয়েকটা মাস এখন আমরা খুব
ভালো বন্ধু তুমি থেকে তুইতে নেমে এসেছে এখন।
– চল আজকে ফুচকা খেতে যাবো?(নিলা)
– হুমম চল। কিন্তু আজকে বিল তুই দিবি আমার কাছে টাকা নাই?(আমি)
– আচ্ছা চল?(নিলা)
– নিলা একটা কথা বলি?(আমি)
– হুমম বল?(নিলা)
– আমি তোকে সত্তি খুব ভালোবাসি?(আমি)
– আচ্ছা কালকে একটু পার্কে আসিস?(নিলা)
– কেন?(আমি)
– আসতে বলছি আসবি এতো কারন লাগে কেন তোর?(নিলা)
আমার তো খুশিতে নাচতে ইচ্ছা করতাছে।
আনন্দের চোটে রাতে ঘুম হলোনা ।
পরেরদিন বিকেলে পার্কে চলে আসলাম।
কি হবে ভাবতাছি বসে বসে তখন ই নিলাকে দেখা গেল।
কিন্তু পেছনে কে ওটা। আরেকটা ছেলেকে দেখা যাচ্ছে।
আসুক তখন ই জানা যাবে?
,
– আচ্ছা বল কেন ডাকছিলি?(আমি)
– তোর সাথে পরিচয় করিয়ে দেই । আমার বি এফ?(নিলা)
– আগে তো কখনো বলসনি। আচ্ছা আমি যাই?(আমি)
বলেই চলে আসলাম।
কেন এমন করলো ও।ওর বি এফ আছে আগে তো বলেনি কখনো তাহলে কি মজা নিয়েছে এতোদিন।
কষ্টে বুকটা ফেটে যাচ্ছে।
আর কলেজ যাবো না। রাস্তায় ও দাড়াবো না।
তাই তিনদিন বাড়ি থেকেই বেড়োলাম না।
ফোনটাও অফ রাখছি।
সাতদিনের দিন সকালে ঘুমাচ্ছিলাম। হঠাৎ দমটা বন্ধ হয়ে আসতে লাগলো। ঘুম ভাংলো দেখলাম নিলা কলার চেপে ধরেছে।
– কিরে তুই এখানে কি করে আর কলার ছাড়? (আমি)
– আগে বল আমাকে ভালোবাসিস।(নিলা)
– কিন্তু তোর তো বি এফ আছে?(আমি)
– তুই যে কত বোকা তা আমি আজকে বুঝলাম। ওইটা আমার খালাতো ভাই ছিলো ভাবছিলাম তোকে আর কিছু দিন ঘুরাবো বাট তুই তো দেখা করাই বাদ দিয়া দিলি গাধা কোথাকার। তুই চলে যাওয়ার পর বুঝতে পারলাম তোকে ছাড়া ইম্পসিবল (নিলা)
– তাহলে এবার বল আমাকে ভালোবাসিস?(আমি)
– হুমম অনেক ভালোবাসি?(নিলা)
হঠাৎ ই খেয়াল করলাম আমার তো লুঙ্গি ঠিক নাই।
ওমনি চিৎকার দিলাম কিন্তু শব্দ হলো না তার আগেই নরম একটা ঠোট আমার ঠোটের ওপর পড়লো।
,
বাকিটা জানতে চাইলে অপেক্ষা করেন ৭ বছর তারপর পোস্ট করবো?

গল্পের বিষয়:
ভালবাসা

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত