পেয়েছি তাকে

পেয়েছি তাকে

“আজকে আমার ভাগ্য ভালো, সুন্দরি এক
সঙ্গী হলো,কারে কি বলি সে যে ফুলের কলি, নাকি ভালোবাসার ময়না, হয়না তার কোনো তুলনা”
.
ওই আমি কি পাগল হইছি নাকি।এই গান গাইতাছি কেন।(হায় আল্লাহ, এই টা কে,আমি ত শেষ,আল্লাহ বাচাও আমারে,যেভাবে তাকাই আছে মনে হচ্ছে খেয়ে ফেলবে )
.
আমি:কি হয়েছে আন্টি,এভাবে তাকাই আছেন কেন,আমি কি করেছি((ভয়ে ভয়ে))
মেয়ে:ওই কি বললি!আরেক বার বল ত??
((আন্টি বলাতে মনে হয় আরো রেগে গেছে, আল্লাহ বাচাও))
আমি: কই কিছু বলিনি তো, আমি কি আপনাকে কিছু বলেছি?? কই আমার তো মনে পরছে না!!
মেয়ে :ওই মিয়া ফাজলামো করার জায়গা পান না তাই না??(রেগে)
আমি: ও হ্যা, মনে পড়েছে, আমি তো আপনাকে আন্টি বলেছি।ঠিক তো আন্টি??
মেয়ে : (আরও রেগে) ওই আমাকে কোনদিক থেকে তোর আন্টি মনে হল রে?? আর মেয়ে দেখলেই গান গাইতে মন চায় তাই না?
আমি: ( দৌড়ের প্রস্তুতি নিয়ে)ঠিকই তো আপনি তো আন্টি না।আসলে আমি যে কি একটা না!! কি বলতে কি বলে ফেলি।

আসলে আপনি তো একটা চাচি!!!((বলেই দৌড় দিছি))
মেয়ে: ওই তোরে আরেক বার পাইলে যে কি করমু!!
আমি: আমারে পাইলে তো আর!!!! (চিল্লায়)
.
যাক বাবা বাচা গেলো। কি মেয়েরে বাবা।কিন্তু মেয়ে টা হেব্বি কিউট। কতো সুন্দর টানা টানা চোখ,মায়াবী চেহেরা।

ইস যদি এই মেয়ে কে পাইতাম। ওই পাইতাম মানে আমারে পাইতেই হবে।কিন্তু কিভাবে!??আমি তো ওর কিছুই জানিনা।

ধ্যাত কেন যে ঝগড়া করতে গেলাম।
.
আরে ধুর এতো ক্ষণ ধরে বক বক করতেছি,এখনো আমার পরিচয়ই দিলাম না।ওকে শুনুন তাহলে–
.
আমি হলাম স্বাদ।লেখাপড়া শেষ করে অনেক হয়রানির পড় একটা চাকুরী পাইলাম।আর এই চাকুরীর খুশিতে আত্মহারা হয়ে গান

গাইতে গিয়ে ভুল সময় ভুল গান বলে ফেলেছি, আর তাতেই এই বিপত্তি।
আর যাই হোক আমার এই মেয়েকে পেতেই হতে হবে, প্রথম দেখাতেই ভালোবেসে ফেলেছি,তা তো আর হাতছারা করা যাবে না।.
.
আর তারপর খোজখবর নিয়ে জানতে পারি যে ওর নাম রুহি আর বাসা একটু এগিয়ে গেলেই। আর পরেও এখানকার কলেজে।

আর ওই রাস্তা দিয়ে প্রত্যেক দিন যায়। আর তাই আমার প্রত্যেকদিনের কাজ হয়ে গেলো ওকে ফলো করা বাট লুকিয়ে করতাম।

কারণ যে কথা বলেছে যদি দেখে ফেলে তাহলে খবর আছে আমার।
.
((কথায় আছে, চোরের দশদিন আর গৃহস্থের একদিন,, আমার ক্ষেত্রেও একি ঘটনা ঘটলো)) একদিন ধরা খেয়েই গেলাম।ধরা খেয়ে,
.
রুহি আমার সামনে আর আমি কিভাবে পালাবো তাই ভাবছি।মনে হয় বুঝতে পেরেছে তাই-
রুহি: কি পালানোর চিন্তা করা হচ্ছে তাই না!! কোনো লাভ নাই। পিছে ফিরে দেখো চান্দু।
আমি পিছে ফিরেই আমার চোখ কপালে উঠে গেলো আর হাঠু কাপছে,, আর বলতেছি আল্লাহ আমারে বাচাও।
রুহি: কি!!! কি যেন বলতেছিলি সেইদিন আমি আন্টি তাই না??
আমি: আরে না না!! কিছু বলিনি তো। তবে আজ বলব, যদি অনুমিত দেন তো??
রুহি: ওই কি বলবি হ্যা??আমি কি তোর কথা শোনার জন্য এখানে আসছি!! ওকে বল কি বলবি।
আমি:((ভাবতেছি পাম দিতে হবে,শুনেছি মেয়েদের প্রশংসা করলে নাকি গলে যায়)) আসলে বলতে চাচ্ছি আজ না আপনাকে অনেক সুন্দর লাগছে,

ঠিক যেন নিল পরি। ওই টানা টানা চোখ, দিঘল কালো চুল,মায়াবি মুখ সাথে মিষ্টি হাসি,পরনে নিল ড্রেস একেবারেই অতুলনীয় মন মাতানো।
রুহি:ওই থাম এবার, আর পাম দিতে হবেনা।((দেখে মনে হচ্ছে কাজ হয়েছে))
আমি:আরে সত্যি বলতেছি অনেক সুন্দর লাগছে।।
রুহি:ওকে, থাক। আর বলতে হবেনা।একটা কথা বলি-
তুই যে আমাকে প্রত্যেকদিন আমাকে ফলো করিস আমি কিন্তু সব জানি। চুপি চুপি দেখিস কেন, যদি কিছু বলতে চাস তাহলে বলতে পারিস।।

(( বলেই চলে গেলো ))
আমি: হায় আল্লাহ একি তুমি দেখি মেঘ না চাইতেই জল দিয়া দিছো। তোমাকে অনেক থ্যাংকু আল্লাহ।।

আর একটা কথা আমি আজ থেকে নামায পরবো হিহিহি।।।
.
বাড়ি যাচ্ছি খুশী খুশী মনে আর ভাবতেছি কালকেই ওকে প্রপোজ করবো হিহি।।
বাড়িতে আসার পর ছোট বোন একটা ছবি হাতে —
বোন :দেখতো ভাইয়া পছন্দ হয় কিনা?
আমি :সেরাম অবাক হয়ে, তুই এই পিক কই পাইলি??
বোন:আরে এই মেয়ের সাথেই আম্মু তোর বিয়ে ঠিক করছে।
আমি: (আরও অবাক হয়ে) কিহহহহ!!!!
বোন:কি কি করে লাভ নাই।তোকে এই মেয়েকেই বিয়ে করতে হবে,তোর পছন্দ হোক আর না হোক,, আমাদের পছন্দ হইছে ব্যস।
আমি: আরে কি বলিস একে বিয়ে করব না ত কাকে করবো।।
বোন:মানে??
আমি:: যা ভাগ এখান থেকে, আর মানে মানে করা লাগবে না।
.
আমি তো খুশিতে আত্মহারা হয়ে গেছি।আল্লাহ তুমি আমার মনের আশা এতো তাড়াতাড়ি পুর্ন করে দিলা।হিহি।

আর তাই ঠিক করলাম ওকে আর কাল প্রপোজ করবো না, যা হবে সব বাসর রাতে হিহি।এখন আর আমি ওই রাস্তায় যাই না।

তবে প্রত্যেকদিন খোজ নিয়েছি আর জানতে পেরেছি যে, সে নাকি আমাকে অনেক খুজেছে।কিন্তু আমাকে পায়নি।

আমি ভাবতেছি খুঁজুক, বাসর রাতে দেখাবো মজা আর তখন আমাকে দেখে ওর চেহেরা দেখার মতো হবে হিহি।
.
বাসর রাতে,
আমি : আসতে পারি ম্যাডাম??
গলা চিনতে পেরেছে মনে হয়, তাই নিজেই ঘোমটা তুলে,
রুহি:তুতুতুতুমি,!!!!!!!!
আমি:অন্য কারও আশা করতেছিলেন মনে হয়??
রুহি: শয়তান, বদমাশ ছেলে,,,এতো দিন যাও নি কেন,,আমাকে কষ্ট দেওয়া, দাড়াও দেখাচ্ছি মজা!!((কাছে আসতে আসতে))
আমি: ওই দারাও, কি করো,দরজা টা তো লাগাই আগে, হিহি।
আরও কি দেখেন দরজা তো লাগিয়ে দিয়েছি হিহিহি।।।

গল্পের বিষয়:
ভালবাসা

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত