ভালোবাসি

ভালোবাসি

– বউ ও বউ?(আমি)
-কি?(নীরা)
-ও বউ?
-কি সেটা তো বলো?
-দিবা?
-কি?
-আদর?
-আদর কি মামার হাতের মোয়া,যে চাইলে পাওয়া যাই?
-বউয়ের হাতের মোয়া
-দেখো কাজের টাইমে ফাজলামি করবা না?
-কি এমন কাজ তোমার?
-রাতে তো দুষ্টুমি করে ঘুমাতে দেন না,আর সকাল সকাল আমাকে ঊঠতে হয়,আর বাকি কাজগুলা করতে হয়?
-আমি ঘুমাতে দেই না?

-হুম,তা নয়তো কি?
–তুমি জেগে থাকছো?
-তাই
-হুম।
-তাহলে দুষ্টুমি কে করছে আমি না তুমি?
-আমি করছি আর তুমি কম কিসে?
-তুমি বেশি?
-তাই
-হুম।
-আমার সব দুষ্টুমি তো আমার এই কিউট বউকে ঘিরে,
-আর আমার সব চাওয়া আমার এই পাগলা বরকে ঘিরে
-তাই বুঝি,
-হুম।
-তাহলে দিচ্ছো না ক্যান
-কি
-তোমার মাথা,
-আমার বর টা কি রাগ করেছে আচ্ছা নাও দিচ্ছি। ও আমার বউ নীরা, আর আমি? বিকালে শুয়ে আছে এমন সময়..

-এই তুমি শুয়েছো কেনো এখন?
-তা না হলে কি করবো?
-প্রতি শুক্রবারে কি করো মনে নাই?
-আছে তো?
-কি?
-ঘুমাই
-এই মিথ্যুক আমরা প্রতি শুক্রবার বেড়াতে যাই,
-তাই বুঝি,কঈ আমার মনে নাইতো?
-ও তাই,এখন তো বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার ভয়ে এসব বলবে?

-সত্যি আমার মনে নাইতো,
– ঐ ফালতু নাটক না করে চলো?
-কোথায়?
-ঘুরতে?
-বাবু আজ আমার খুব ঘুম পাচ্ছে?
-তাই।
-জি
-তাহলে তুমি ঘুমাও আমি গেলাম?
-কোথায় যাও?
-তোমার জানতে হবে না?
-আচ্ছা আজ কোন কালারের পাঞ্জাবিটা পড়ে বের হবো?

-আমি কোন কালারের শাড়ি পড়ছি?
-নীল
-তাহলে তুমিও।
-আচ্ছা, পাগলিটাকে নিয়ে বের হলাম. রিক্সায়….
-এই তুমি এভাবে বসছো ক্যান?(নীরা)
-কিভাবে বসছি?(আমি)
-এতো দুরে?
-কই
-দেখো তুমি একপাশে আর আমি একপাশে,
-তাহলে কি তোমার কোলের উপর বসবো?
-তা না,আরও কাছে আসো?

আমি পাশ ঘেসে বসলাম,ও ওর হাত দিয়ে আমার হাত টা জড়িয়ে নিলো,মাথাটা আমার কাধের উপর দিলো ওর খোলা চুল গুলো আমার মুখে এসে পড়লো..খুব সুন্দর সুগন্ধ ওর চুলের,আমার কাছে ওর চুল গুলো বেস্ট লাগে.সব চেয়ে পছন্দের দুজন মিলে পার্কে গেছি, ও ফুচকা খাচ্ছে আর আমি চেয়ে আছি, পৃথিবীতে সব চেয়ে আমার এই দৃশ্যটা ভালো লাগে, ও ফুচকা খেয়ে ওর লাল মুখটা আরো লাল করে ফেলে,তখন ঝালে ওর নাকের মাথাটাও লাল হয়ে যায়, হঠাৎ ওর চোখ পড়ে আমার চোখের দিকে, ও ওর এলোমেলো চুল গুলো ঠিক করে লজ্জায় মাথাটা নিচু করে আমাকে জিজ্ঞেস করে..

-কি দেখছো(নীরা) আমার মুখ থেকে অস্পুষ্ট স্বরে বেরিয়ে আসে,
-আমার কিউট বউ টাকে ও আরো বেশি লজ্জা পাই, ও যখন লজ্জা পাই যখন আমি তার দিকে থাকিয়ে থাকে,অনেকেই বলে ভালোবাসার মানুষের সব নাকি সুন্দর লাগে,কিন্তু ওর সব কিছু আমার সবার থেকে আলাদা লাগে, ওর লজ্জা পাওয়া,দুষ্টুমি করা, আমাকে লুকিয়ে দেখা, নিজেকে খুব লাকি ভাবি ওকে পেয়ে সেদিন রাতে বাসায় ফিরলাম, আজ আকাশ টা খুব মেঘলা, হয়তো বৃষ্টি নামবে, আমি বসে বসে অফিসের কাজ গুলো করছিলাম, ও এসে আমার কোলে বসে যেনো একটা পিচ্ছি মেয়ের মতো আমার গালে হাত দিয়ে আদর করতে করতে বললো,

-কি করছ গো
-এইতো অফিসের কিছু কাজ আছে সেগুলা,
-তোমাকে না বলছি বাসায় অফিসের কাজ করবা না,
-আচ্ছা,বাদ।
-আমার লক্ষী জামাই
–হুম
-বাবু একটা কথা বলবো?
-বকবা না বলো?
-বাইরে খুব বৃষ্টি হচ্ছে চলো ভিজি
-নীরা..
-তুমি কিন্তু কথা দিছো আমাকে বকবা না,
-আচ্ছা বকবো না,কিন্তু দেখো ভেজার সাথে সাথে তোমার জ্বর আসবে,তুমিতো জানো তোমার এরকম হয়

-কিন্তু
-কোনো কিন্তু না,এখন চুপচাপ শুবা
-বাবু প্লিজ
-নীরা একবার বলছি?
-প্লিজ প্লিজ প্লিজ(করুন স্বরে)
-কিন্তু তোমার..
-আমার কিছু হলে তুমি আছো তো?
-আমি কি করবো?
-আমার সেবা করবা..
-আমার অফিস কি তুমি করবা!
-দেখো ওসব বাদ,আমি ভিজবো মানে ভিজবো..

-আমি নিষেধ করার পর ও।
-না,কিন্তু আজ একটু প্লিজ,
-শুধু মাত্র ৫ মিনিট,
-আচ্ছা,চলো
-চলো মানে?
-হুম চলো,,
-আমি হেটে হেটে যাবো না,
-আমি কোলে নিতে পারবো না
-পারবো না মানে(ও আমার পিছনে লাফ দিয়ে উঠে গেছে)
-নীরা তোমার বাচ্চামি গুলা,নামো কোলে নিচ্ছি, আমি ওকে কোলে করে নিয়ে যাচ্ছি,এমন সময় ও ওর নাক টা আমার নাকের সাথে ঘসা দিলো ইচ্চা মতো ভিজলাম দুজন। রাতে শুয়ছি এমন সময়…

-বাবু আমার খুব শীত শীত লাগছে..
-আজকে আমার কপালে দুখ আছে,বলছিলাম না ভিজতে, আমার কথা শুনবা ক্যান?

-বাবু প্লিজ বকো না,তুমি আমাকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরো,দেখবা আমার কিছু হবে না, আমি ওর মাথায় হাত বুলিয়ে দিচ্ছি ও ঘুমিয়ে গেলো, কিন্তু মাঝ রাতে শুরু হলো জ্বরে গোড়ে ওর প্রলাপ বকা, মানে আজ আমার আর ঘুম হবে না, ও এরকম একটা বৃষ্টির ফোটা পড়লেও ওর জ্বর চলে আসবে আর জ্বর অনেক বেশি আসে, আজো তাই হলো, আমি ওর মাথায় জলপট্টি দিতে থাকে ,শেষ রাতের দিকে ওর ঘুম এলো,ও আমার একটা হাত ওর বুকে জড়িয়ে ধরে আছে শক্ত করে, আর আমি চেয়ে আছি ওর নিষ্পাপ মুখটাকে, আর কিছুক্ষন পর পর ওর চোখের পাতাগুলো কেপে ওঠা, একদম ছোট বাচ্চার মতো ঘুমাচ্ছে, আমার কাছে ও একটা বাচ্চার মতো, সকালে ঘুম ভাঙ্গলো কারো নাকের সাথে আমার নাকের ঘসা খেয়ে,দেখলাম পাগলি টা নাস্তা নিয়ে রেডি হয়ে আছে,আর আমার দিকে চেয়ে আছে,

-কাল বার বার বলছিলাম না ভিজতে, না আমার কথা শুনবা ক্যান,তোমার কিছু হলে আমি কি করবো বলো,তোমাকে ছাড়া কিভাবে বাচবো.তুমি যে আমার সব(আমি) ও কিছু না বলে ওর ঠোট আমার কপালে ছুইয়ে পরম উষ্ণতায় আমায় জড়িয়ে ধরলো যাতে ও আমায় বুঝিয়ে দিলো,আমি সারাজীবন তোমাকে ওভাবে জড়িয়ে ধরে থাকবো,তোমাকে ছেড়ে যাবো না আমি ও পাগলিটাকে আমি অনেক ভালোবাসি, ভালোবাসা কি আমি জানিনা, কিন্তু আমার কাছে ভালোবাসা মানেই আমার নীরা।

সমাপ্ত

গল্পের বিষয়:
ভালবাসা
DMCA.com Protection Status
loading...

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত