প্রেম ভালোবাসা

প্রেম ভালোবাসা

HSC টেষ্ট Exam. দিয়াছি।। সামনে HSC exam জনি তুমি কাল থেকে আমার বন্দু সুমন, তার কাছে ICT Private প্রাইবিট পড়তে যাবে।। আর তোমার HSC Exam যেখানে হবে, সেখান কার ভালো একটা ICT কলেজ টিচার।। আমি ওর সাথে কথা বলছি।।তোমাকে যেতে বলেছে।।।
ঠিক আছে বাবা। বাবা অনেক দুর তো,তাই বলছিলাম কি বাইটা কি নিয়ে যেতে পারি। আমাদের এখান থেকে তো অনেক দুর তাই,।

ওকে ঠিক আছে নিয়ে যাইবা,, কিন্তু জোরে চালাতে পারবানা কিন্তু।। আচ্ছা ঠিক আছে,, বাবা, ওকে কাল সকাল ৭:৩০ থেকে তোমার প্রাইবিট, তাই তারাতারি ঘুম থেকে ওঠবা।।।আর ভালোমতো পড়ালেখা করবা।।(বাবা) ওকে বাবা, তারপর আমি সেখান থেকে আমার রুমে চলে আসলাম।। আমি জনি,,,  আমরা ২ ভাই ১ বোন,,, জামালপুর, আমার বাসা।।। পল্পে আসা যাক।। তারপর আসি পড়তে বসলাম।।রাত ১০ টা পযন্ত পডলাম। সকালে ৬ টা সময় ঘুম থেকে ওঠলাম।তারপর ফ্রেস হলাস।। ৬:৫০?মেলা দিলাম,বাইক টা সাথে নিয়ে।। তারপর কলেজে আসলাম।। এসে কোন রুমে স্যার পড়াই তার খোজ করলাম।।না না থাস আমি না হয় ফোন দেই স্যার কে,,তাই আব্বার কাছে থেকে স্যার নাম্বারটা নিয়েছিলাম।।তাই ফোন করলাম,,, আস্সালামুআলাইকুম, স্যার আমি জনি,,আর আমি রুম।টা খুজে পাচ্ছি না।। ওয়ালাইকুম সালাম,,তুমি এখন কোথায় আছো।।

জি স্যার আমি এখন গ্রেট এর কাছে আছি।। (আমি( ওই তো তোমাকে দেখতে পাইছি,,এদিকে আসো।।(স্যার) ওকে স্যার, তারপর আমি স্যার এর কাছে যাই।।। এই হলো তোমাদের নতুর স্টুডেন্ট,,আজ থেকে তোমাদের সাথে ওই ও পড়বে।।।যাও জনি ওই খানে গিয়ে বসো। তারপর আমি সিটে গিয়ে বসি।। এই ব্যাসে ৫ জন ছেলে আর ৪ জন মেয়ে।।  ১ ঘন্টা পর।আজ যেগুলো পড়ালাম সেগুলো বাড়িতে গিয়ে মন দিয়া পড়বা।।জনি কালকে ঠিক টাইমে চলে  আসবা।।(স্যার) ঠিক আছে স্যারর(আমি)ক্লাস থেকে বাহির হয়ে, হ্যালো bro, আমি আন্তুর, হাই, আমি জনি,, তারপর আরো কয়েক জন এর সাথে পরিচয় হলাম।।। তারপর বাড়িতে চলে আসলাম।। তারপরদিন, বাইটা নিয়ে, ৬:৫০শে বাহির হলাম। যখন পৌছাই, তারপর টাইম দেখি এখোনো ১৩ মিনিট বাকি আছে,  অনেকে চলে আসছে।

এই জনি এদিকে আসো,,(অন্তর) আচ্ছা বইটা ক্লাসে রেখে আসি তারপর তারাহুরা করে বইটা ক্লাসে রেখে যাওয়ার জন্য যখনি দরজা দিয়ে ঢুকতে যাবো তখন কার সাথে যেত দাক্কা খেলাম।। সামনে তাকিয়ে দেখি যে একটা মেয়ে,, এই আপনি কি চোখে দেখেন না, নাকি মেয়ে দেখলেই দাক্কা দিতে মন চায়।।(মেয়েটা) আপনি চোখে দেখেন না।। দুর, আপনি কে,আর আপনি এখানে কেন, কি চাই এখানে, কেন আসছেন এইখানে।। আরে আস্তে আস্তে প্রশ্ন করেন, এতোগুলাম একবারে করলে কোনটা থুয়ে কোনটার উত্তর দিবো,, একেবারে সব টার উওর দেন(মেয়েটা) আমি জনি এখানে, কালকে থেকে এই ব্যাচ এর সাথে আমি যয়েন করছি।। কিন্তু আপনে কে,। (আমি) আমি কে সেটা আপনার না যানলেও চলবে,,, আর আমি এই ব্যাচ এর সাথে আগে থেকেই পড়ি।।

আপনার মাথা দিয়ে আমাকে আরেকবা একটা টুকা দেন,,না হলে শিং গজাবে,,(মেয়েটা) সরি যদি নাম টা বলেন তাহলে দিবো তা না হলে দিবো না,আমি আবার অচেনা কারো সাথে টোকা দিতে পারি না।।প্ররিচয় দেন তাহলেই দিবো,,(আমি) আমি বর্ষা, এবার তাহলে দেন,, আমি ছোট করে আরেকটা টোকা দিয়ে চলে আসলাম অন্তুর এর কাছে,, এতো দেরি হলো কেন (অন্তর) না মানে, ক্লাসে যা হলো তা সব বললাম, ওহহহ এই ব্যাপার,,, হুম,,, খুব রাগি একটা মেয়ে,,,, কি দমক টাই না দিছে আমারে,,।আমি) ওদিকে কিরে তোরা এখানে বসে কি করিস(বর্ষা) তেমন কোন কিছু না,, কিন্তু দেখতাছিলাম কিছু একটা (বর্ষার বান্দুবিরা) কি দেখতাছিলি(বর্ষা) এই যে আমাদের ব্যাচে নতুন একটা ছেলে আসছে, কালকে,, এখোনো প্রযন্ত আমাদের সাথে কথা বলা তো দুরে থাক তাকাইছিলো কিনা মনে হয়, আর আজকে এসে, তোর সাথে কি সুন্দর সুন্দর ভাবে টোকা টোকি করলি, এটাকি আমাদের দেখালি নাকি,,যে (বান্দুবিরা) কি দেখালাম আমি আবার তোদের (বর্ষা) কি মানে, তুই বলে রিলেশন করিস না,তা কতোদিন দরে তোদের রিলেশন চলছে কি যা তা বলছিস আমি তো ওকে আজই দেখলাম, কাল আসছিলাম  না নাই বোধয় দেখা হইনাই।(বর্ষা) আমাদের বিশ্বাস হয় না ,।  চুপ কর তো।

কেন চুপ করবো, আমাদের ব্যাচে আসছে কালবে, এখোনো প্রযন্ত আমাদের সাথে কথা বললো না, আর তোর সাথে,
বাত দিবি নাকি আমি চলে যাবো,, না থাক,,(বান্দুবিরা) কিছুক্ষন পর স্যার আসলো তারপর সবাই ক্লাসে চলে গেলাম।। স্যার অঙ্ক বুজাসছে।  তারপর সেইটা যখন কাতায় তুলতে যাবো, দেখি কলোমে কালি শেষ,,।অন্তর তোমার কাছে, অতিরিক্ত কলম আছে, না নেই তো,,কেন আমার টা কালি শেষ,? নিহা একটা অতিরিক্ত কলম হবে, (অন্তর) হুম আছে, এই নি(নিহা) দরো এটা দিয়ে লিখো, আর পরে দিয়ে দিয়ো ওই যে নিহা কে,, ওতে ঠিক আছে,, তারপর লিখলাম।। তুমি তাহলে থাকো,, আমি যাই, আজ আমার তারাতারি যেতে হবে(অন্তর,) ওকে, অন্তর চলে গেলো,  ছুটি, সবাই বের হচ্ছে।  হ্যালো নিহা, আমি জনি, হ্যালো, কিন্তু আমার নাম টা জানলে কি করে,,, অন্তর এর কাছ থেকে (আমি) ওহহহহ,,, এই নাও তোমার কলম,,,অনেক ধন্যবাদ।।

হিহিহি, আচ্ছা ওয়েলকাম.তারপর দুজনে হাটতে থাকলাম দুজনে,, জনি, কোথায় বাসা তোমার (নিহা) তারাকান্দি, তোমার কোথায় বাসা(আমি) সামনেই আমার বাসা(নিহা) ওকে আজ তাহলে আসি ওকে যাও,।  তারপর বাইটা নিয়ে চলে আসার জন্য স্টাট করলাম।। কলেজ থেকে বাহির হয়ে দেখি বর্ষা একটা রিকশা নিয়ে যাচ্ছে, আমি,,,, আমাকে দেখে মুখটা ৪২০ এর মতো বানিয়ে গুরে গেলো।। তার কিছুসেকেন্ড পর আবার তাকিয়ে, একটা, রাগি আর সুন্দর একটা হাসি দিলো,, যেটা দেখে আমার মনে আরেটা আলন্দ বয়ে গেলো।। তারপরে দিন, একটু লেট হয়ে গেছে ৭,১৫ বাজে, হাতে ১৫ মিনাট আছে । আজ আর ম্যানরোট দিয়ে যাবোনা। তারাতারি যেতে হবে তাই বায়ে একটা রোড় আছে,, । তারপর গেলাম সেই রোট দিয়ে,,  বাইক চালাইতাছি অনেক স্পিট।।

কিছুক্ষন পর যখনি একটা বাড়ির পাশে দিয়ে যাচ্ছিলাম দেখি, বর্ষা দাড়িয়ে আছে, আমাতে দেখে হাট ওঠালো।।
আমি তো অবাক, ওদের বাডি এটা,  তারপর বাইক থামালাম।। আপনি কই যাবেন।। (বর্ষা) আজ আমার দেরি হয়ে গেছে তাই এই রুট রিয়া পাইবিটে যাচ্ছি,, আপনি এখোনে যান নাই কেন প্রাইবিটে।।(আমি) ‘আজ আমারো ঘুম থেকে ওঠতে দেরি হয়েছে, (বর্ষা) ওকে যদি আপনার কোন আপত্তি না থাকে তাহলে আমার বাইকে চড়ে যেতে পারেন(আমি( আচ্ছা,(বর্ষাা) বর্ষা তারপর ওঠলো, ওঠে, হাতদিয়ে দরার কোন স্থান খুজে পেলো না।।অবোশেষে, তার হাত আমার কাদে দিয়ে দরলো,, বর্ষার হাত যখন আমার কাদে রাখলো,তখন কি নরম একটা জিনিস যেন আমাকে স্টাচ করলো,, কি হলে চলেন এবার দেরি হয়ে যাচ্ছে(বর্ষা) ওকে, তারপর বাইক টা চালালাম।।।

গিয়ে দেখি ক্লাস শুরু হয়েছে, তারপর দুজনে একসাথে ক্লাসে গেলাম।। আসি স্যার,, (দুজনে এক সাথে) ওকে আসো,,, যখন রুমে প্রবেশ করলাম, দেখি সবাই অবাক দুষ্টিতে আমাদের দুজনের দিকে তাকিয়ে আছ,  ক্লাস শেষে,,  আজ সবাই মিলে আড্ডা,, (দিবো (অন্তর) ওকে  তারপর আমরা সবাই একখানে বসলাম, ওদিকে ভালোই তো প্রেম করতাছিস, আমি ভাবছলাম, আমি এতটা রিক্স নিবো।(নিহা) কি যা তা কলছিস।।কিসের প্রেম।।(বর্ষা) কি মানে এই যে আজ জনির বাইকের করে দুজনে এক সাথে এলি, প্রেম তো বালাই করছিস।(নিহা) কি যা তা বলস, আমার আজকে দেরি হয়েছে, তাই রিক্সার জন্য দাড়িয়ে ছিলাম পাইতাছিলাম না,,তখন দেখি জনি যাচ্ছে তাইতো, ওর সাথে আসলাম।(।বর্ষা)

আমাকে ছোট খুকি পাইছস, আমি একটা সুযোগ নিতে চাইছিলাম,,, কিন্তু তোর জন্য আর হলো না(নিহা) ওই তুই না অনিক এর সাথে প্রেম করিস তাহলে আবার জনির সাথে করবি কেন।।।।(বর্ষা,) না রে অনিক এর থেকে জনি ভালো তাই, এখন থেকে জনির সাথে রিলেশন করমু(নিহা) আমি তো করতে দিমু না (বর্ষা) কেন দিবি না(নিহা) সেটা তোকে কেন বলমু(বর্ষা) আমি করমুই দেখি তুই কি করস,, আমি করতে দিমু না,,,দেখিস, আমি জনিকে তোর সাথে করতে দিমু না।।।

গল্পের বিষয়:
ভালবাসা

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত