পীর সাহেবের পরীক্ষা

পীর সাহেবের পরীক্ষা

কাউকে মুরীদ করার আগে পীর সাহেবের পরীক্ষা কেমন হয় তাই আজকের আলোচনা। পীর সাহেবের পরীক্ষা পাশ করে তবেই তাসাউফের ইলম অর্জন করা যাবে।

আরেকজন ব্যক্তি এসেছে ‘ইসমে আজম’ শিখতে। বুযুর্গ বললেন, ইসমে আজম অত্যন্ত শক্তিশালী একটি ইসম। এটা খারাপ ব্যক্তি বা দুনিয়াদার ব্যক্তি কিংবা লোভী ব্যক্তিকে শিখিয়ে দেয়া মোটেই সমীচীন নয়। তাছাড়া এটা এমন ব্যক্তি শিখতে পারেন যার দৈর্য্য অনেক। দৈর্য্যশীল ব্যক্তি ছাড়া এমন ইসিম শিখিয়ে দেয়া উচিত না। লোকটি বলল, ‘জনাব আমার মধ্যে উপরে বর্ণিত সকল গুণাগুন বিদ্যমান। আপনি আমাকে নির্দিধায় ইসমে আজম শিখাতে পারেন।’ বুযুর্গ বললেন, পরে আসিও। এভাবে লোকটি প্রতিদিন আসত আর বুযুর্গকে অনুরোধ জানাত। একদিন বুযুর্গ বললেন, তুমি কি এই উত্তরের পাহাড়টি চেন? হ্যাঁ চিনি, লোকটি উত্তর দিল। বুযুর্গ বললেন, তুমি এই পাহাড়ের উপরে উঠে একটু লুকিয়ে থাকবে। সারাদিন বসে থাকবে আর লক্ষ্য রাখবে নিচে কোনো ঘটনা ঘটলে আমার কাছে এসে ব্যক্ত করবে। তারপর আমি সিদ্ধান্ত দিব যে, আমি তোমাকে ইসমে আজম শিখাবো কি না।

বুযুর্গের কথায় লোকটি ঐ পাহাড় বা টিলার উপর বসে থাকল। সমস্ত দিন শেষ হয়ে যাচ্ছে কিন্তু কোনো ঘটনাতো আর ঘটছে না। লোকটি খুবই নিরাশ হয়ে গেল। হঠা দেখল একজন বৃদ্ধ লোক ঘোড়ায় চড়ে আসছে এবং ঘোড়ার উপরে বোঝাই করা কাঠ এবং কোমরে একটি টাকা তলি। লোকটি পানি পান করার জন্য ঘোড়া হতে নেমে একটি জলাশয়ে নামল আর পানি পান করে যখন ঘোড়ার কাছে গেল তখনই একটি লোক আসল এবং বৃদ্ধ লোকটির কাছ থেকে জোরপূর্বক সকল কাঠ, টাকা, কাপড়-চোগড় সবই ছিনিয়ে নিল। বৃদ্ধ লোকটি অনেক আকুতি-মিনতি করল কিন্তু কিছুই ফেরত দিল না বরং আরো প্রহার করল। তারপর ডাকাতটি পালিয়ে গেল।

যে লোক টিলার উপরে বসেছিল সে মনে মনে ভাবল, যদি হুজুর আমাকে নিষেধ না করতেন তাহলে অবশ্যই আমি লোকটিকে সাহায্য করতাম। তারপর সে ফিলে এল এবং সম্পূর্ন কাহিনী বুযুর্গ ব্যক্তিকে সুন্দর করে বয়ান করল। বুযুর্গ লোকটিকে লক্ষ্য করে বললেন, যদি তুমি ইসমে আজম জানতে তাহলে কি করতে? লোকটি জবাব দিল, আমি যদি ইসমে আজম জানতাম, তাহলে ঐ দুষ্ট লোকটিকে কঠোর শাস্তি দিতাম। এমনকি তার হাত-পা ভেঙ্গে পঙ্গু করে দিতাম।

তখন বুযুর্গ বললেন, তুমি ফিরে যাও কারণ আমি তোমাকে ইসমে আজম শিখাবো না। তুমি এর উপযুক্ত না। সে বলল হুজুর, আপনি যদি ঐ বৃদ্ধ লোকের কান্নাকাটি দেখতেন তাহলে আপনি এমন কথা বলতেন না বরং ঐ ডাকাতকে কড়া শাস্তি দিতেন। বুযুর্গ বললেন, হে আগন্তুক ব্যক্তি! তুমি কি জান সেই ব্যক্তি কে, যাকে ডাকাত সবকিছু ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। লোকটি বলল, না হুজুর, আমি জানি না। বুযুর্গ বললেন, এই সেই লোক যার কাছ থেকে আমি ইসমে আজম শিখেছি। এ কথা শুনে লোকটি হতবাক হয়ে রুযুর্গের দিকে তাকিয়ে রইল আর বলল, এই বৃদ্ধতো দেখছি খুবই দৈর্য্যশীল এবং সহনশীল মানুষ।

গল্পের বিষয়:
ইসলামিক
DMCA.com Protection Status
loading...

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত