ম্যারি সেলেস্ট

ম্যারি সেলেস্ট

ম্যারি সেলেস্ট আমেরিকার তৈরি বিশ্ব বিখ্যাত জাহাজ। ১৮৭২ সালে ম্যারি সেলেস্ট অ্যাটলান্টিক মহা সাগর ভ্রমণ এর উদ্দেশ্যে নাবিক আর ১০জন জাহাজের ক্রু নিয়ে রওনা হয়। ভ্রমন এর এক পর্যায় জাহাজটা সাগরে আরেকটা জাহাজের নজরে পরে। সেই জাহাজের নাবিকের নাম ডেই গ্রাটিয়া। ডেই গ্রাটিয়া দূর থেকে মেরি চেলেস্ট কে দেখতে পান। তার কাছে মেরি চেলেস্ট জাহাজ টাকে অদ্ভুদ মনে হয়। তিনি কাছে গিয়ে ডাকাডাকি করেন ভিতরে কেউ আছে কিনা কিন্তু কোন সারা শব্দ শুনতে পান না। তার কাছে ব্যাপারটা অদ্ভুদ লাগে। এত বড় জাহাজ সাগরে অথচ ভিতর থেকে কেউ কোন উত্তর দিচ্ছে না কেন! তিনি বুঝতে পারলেন জাহাজে অদ্ভুত কিছু ঘটছে।

মেরি চেলেস্টা ভিতর প্রবেশ করলেন ব্যাপারটা বোঝার জন্য। তিনি অদ্ভুতভাবে লক্ষ্য করলেন খাবারগুলো টেবিলে ঠিকঠাক ভাবে সাজানো, অন্য অন্য জিনিসপত্রও ঠিক ঠিক জায়গায়ই আছে এমনকি জাহাজের কোথাও কোনো আঘাতের চিহ্ন পর্যন্ত নেই। তাহলে প্রশ্ন হচ্ছে জাহাজের নাবিক আর অন্যরা কোথায় গেল?

নাবিক ডেই গ্রাটিয়া, চারদিকে ভালোভাবে লক্ষ্য করলেন ব্যাপারটার কোন ক্লু পান কি না! তিনি মেরি চেলেস্টা জাহাজের ডায়েরি খুঁজে পেলেন। সাধারণত জাহাজের ডায়েরিতে দৈনন্দিন কার্যকম লিখে রাখা হয়। মেরি চেলেস্টা জাহাজের ডায়েরিটা ১০ দিন আগের। পাশে টেবিলের খাবারগুলো দেখে মনে হচ্ছে কয়েকদিন আগের মাত্র। এর মানে কিছুদিন আগেও জাহাজে লোক ছিল। তাহলে প্রশ্ন হলো ডায়েরিতে দৈনন্দিন কার্যকর্মের কিছুই লিখে রাখেনি কেন?

মেরি চেলেস্টা জাহাদের এই রহস্যের ব্যাপারে অনেকেই অনেক ধরনের ব্যাখ্যা দিয়েছে। কিছু মানুষ বলে বড় বড় অক্টোপাস জাহাজে এসে সবাইকে খেয়ে ফেলে ছিল আবার কেউ বলে খারাপ আবহাওয়ার কারণে সবাই ঝড়ে উড়ে গেছে। কিছু মানুষ মনে করে মেরি চেলেস্টা ছিল অভিশপ্ত জাহাজ। কেউ এই রহস্যের সঠিক উত্তর দিতে পারেনি। মেরি চেলেস্টা পৃথিবীর মানুষের কাছে আজো এক রহস্য।

গল্পের বিষয়:
ইতিহাস

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত