মোরগ ও শেয়াল

মোরগ ও শেয়াল

গাছে বসে ছিল এক মোরগ। শেয়াল তার কাছে এসে বলল, ‘নমস্কার মোরগভাই, তোমার মধুর গলা শুনে আমি এলাম তোমার সঙ্গে দেখা করতে।’

মোরগ বলল, ‘ধন্যবাদ!’

শেয়াল শুনতে না পাওয়ার ভান করে বলল, ‘কি বলছ আমি শুনতে পাচ্ছি না। তুমি এই ঘাসের মধ্যে নেমে এস না কেন, একটু বেড়িয়ে নাও, আমার সঙ্গে কথা বল, ওখান থেকে আমি তোমার কথা কিছুই শুনতে পাচ্ছি না।’

মোরগ বলল, ‘ঘাসের মধ্যে নামতে আমি ভয় পাচ্ছি। আমাদের পাখিদের কাছে মাটিটা তত নিরাপদ নয়।’

‘নাকি তুমি আমাকে ভয় পাচ্ছ?’ বলল শেয়াল।

‘ঠিক তোমাকে নয়, তবে এমন অন্য জীবকে ভয় পাই সত্যিই,’ বলল মোরগ। ‘জানই তো কত রকম জানোয়ারই না আছে।’

‘নাহে বন্ধু মোরগ, নতুন আইন জারি হয়েছে যার ফলে সকলেই সবখানে এখন নিরাপদে থাকতে পারে। সেই জন্যই প্রাণীদের এখন আর কাউকে ভয় করার দরকার নেই।’

‘এটা বেশ ভালো কথা,’ বলল মোরগ। ‘ঐ একদল কুকুর আসছে, তোমাকে এখন আর ভয় পেয়ে আগের মতো ছুটে পালাতে হবে না।’

কুকুরদের কথা শুনে শেয়াল তার কান খাড়া করে পালাতে চাইল।

‘কোথায় চললে? বলল মোরগ। ‘আইন বলে কুকুরদের এখন সাধ্য নেই তোমাকে স্পর্শ করে।’

‘কে জানে।’ বলল শেয়াল। ‘বোধ হয় এখনও তারা আইনের কথা শোনে নি।’

এই বলে পালিয়ে গেল।

গল্পের বিষয়:
হাস্যরস

Share This Post

আরও গল্প

সর্বাধিক পঠিত