বিয়ের সাজ

বিয়ের সাজ

তিন বছরের প্রেমের সম্পর্ক বিয়েতে রুপ নিচ্ছে। 😙😙এটা ভেবেই বর মনে মনে পুলকিত ছিলো। বিপত্তিটা বাঁধলো বিয়ের আসরে গিয়ে যখন কনের পাশে বসলো তখন। সামনে হাজার হাজার অতিথি।👥👥👥 সবাই হাসিমুখে তাদের দিকে চেয়ে আছে।😊😊 বর আবার তাকালো কনের দিকে। স্টেইজের অদূরে দাঁড়িয়ে থাকা বন্ধুকে ইশারায় ডেকে ফিসফিস করে বললো “দোস্ত বৌ তো অন্য মেয়ে”।
-মানে?😣😣😣
-মানে সুমী না। অন্য কেউ। তুই আব্বাকে বল। বিয়ে ভেঙ্গে দে। সুমী আমার সাথে এমন করবে ভাবতে পারিনি।
বন্ধুটি নিজে কনেকে দেখলো। হ্যাঁ কথা সত্য। সে কনেকে ভালো করে চেনে।😯😯বন্ধুর সাথে প্রেম হবার আগে সেও চেষ্টা করেছিলো। তার কপাল খারাপ। কিন্তু যাকে কনে হিসাবে এখানে বসানো হয়েছে সেও খারাপ না। তবুও দায়িত্ব নিয়ে বন্ধুর বাবাকে ঘটনা খুলে বললো। ততক্ষণে পুরো বিয়ে বাড়ী জেনে গেছে যে যার সাথে বিয়ে ঠিক হয়েছে তার বদলে অন্য মেয়েকে বৌ সাজিয়ে রাখা হয়েছে। সবাই যে যেখানে ছিলো স্টেইজের কাছে ছুটে এসেছে। বরের বাবা মহারাগী।😠😠😠 তিনি স্টেইজের সামনে গিয়েই চিৎকার শুরু করলেন “এই বিয়ে হবে না।😬😬 বন্ধ করেন সব। বন্ধ করেন”।😬😬😡
হবু বেয়াইয়ের চিৎকার শুনে অবাক হয়ে কাছে গেলেন কনের বাবা “কী হয়েছে ভাই সাহেব?🤔🤔 কোনো সমস্যা?😟😟
-সমস্যা মানে ফাজলামো করেন? দেখানোর সময় একটাকে দেখিয়েছেন। এখন আবার আরেকটা মেয়েকে বিয়ে দিয়ে দেবার চেষ্টা করতেছেন। বিয়ে কী খেলা?😠😠
-কি বলেন আবোল তাবোল!😯😯
-বুঝবেন না তো। ধরা খেয়েছেন না। আপনাকে আমি পুলিশে দেবো।👮 প্রতারনা দায়ে জেল খাটবেন আপনি।
-ভাই সাহেব শোনেন আমার কথা. . .
-প্রতারকের কথা শুনিনা। ওই কে আছিস পুলিশে ফোন লাগা
-ভাই সাহেব. . .😟😔😔
কনের বাবার কথা থামিয়ে ছেলের দিকে তাকিয়ে বরের বাবা বললেন “তুই বসে আছিস ক্যান? উঠে আয়। বিয়ে বন্ধ”।
এইটুকু শুনে হুড়মুড় করে কনে স্টেইজ থেকে উঠে আসলো। ভ্যাঁ ভ্যাঁ করে কাঁদতে কাঁদতে বললো “প্লিজ বিয়ে ভেঙ্গে দিবেন না। প্লিজ। দুইটা মিনিট সময় দেন। আমি ওয়াশরুম থেকে মেকআপটা পরিষ্কার করে আসি। সব ক্লিয়ার হয়ে যাবে”।

গল্পের বিষয়:
হাস্যরস

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত