পরীক্ষার রাতবদল

পরীক্ষার রাতবদল

পরীক্ষার আগের রাত ১৯৯৯
পরীক্ষার আগের রাত একজন পরীক্ষার্থীর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই রাতের প্রতিটি মিনিট ঠিকমতো কাজে লাগাতে হবে। পরীক্ষার সফলতা অনেকটাই নির্ভর করে এই রাতের ওপর।

কোনোভাবেই পরীক্ষার আগে নতুন করে কিছু শেখা উচিত নয়। নতুন কিছু শিখলে পুরোনো পড়া ভুলে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। এই রাতে শুধু পুরোনো পড়াগুলোতে চোখ বুলিয়ে নিতে হবে।

পরীক্ষার আগের রাতে বেশিক্ষণ জেগে থাকাও ঠিক নয়। দ্রুত পড়া শেষ করে ঘুমিয়ে পড়া উচিত। ভালো ঘুম হলে পরের দিন মাথা ঠান্ডা থাকবে।

 পরের দিন ঘুম থেকে উঠে ফ্রেশ হয়ে ভালো কাপড়চোপড় পরে তারপর ঠান্ডা মাথায় পরীক্ষার হলে ঢুকতে হবে।
এভাবেই একজন ছাত্রের পক্ষে ভালো ফল করা সম্ভব।

পরীক্ষার আগের রাত ২০১৭
পরীক্ষার আগের রাত খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই রাতে কোনোভাবেই ঘুমানো যাবে না। আগে যেহেতু কিছু পড়া হয়নি, তাই এই রাতেই পড়তে হবে, যতটুকু পারা যায়। পড়তে বসার আগে পাশে সাজেশন নিয়ে বসলে ভালো হয়।

এই রাতে গার্লফ্রেন্ডকে বেশি সময় না দেওয়াই ভালো। গার্লফ্রেন্ড বেশি প্যান প্যান করলে ১২টার পরে ১৫ মিনিট কথা বলে ফোন অফ করে রেখে দিতে হবে।

এই রাতে ফেসবুকেও বেশি সময় অপচয় করা যাবে না। তবে খাওয়ার পরে একবার ফেসবুক লগইন করে একটা স্ট্যাটাস দেওয়া যেতে পারে—উফ ফ্রেন্ডজ, এখনো সব বাকি!

ভোররাতের দিকে আধঘণ্টার জন্য ঘুমানো যেতে পারে। ঘুম থেকে উঠে কোনোরকমে বাথরুম থেকে এসে বাথরুমের স্যান্ডেল পরেই পরীক্ষার হলের দিকে দৌড়াতে হবে।

এভাবেই একজন ছাত্রের পক্ষে ভালো ফল করা সম্ভব।

গল্পের বিষয়:
হাস্যরস

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত