বালির বাঁধ

বালির বাঁধ

নদীতে বান ডেকেছিল । তিন চার দিন ধরে প্রায় শাঁখ বাজিয়ে তাই জানানো হচ্ছিল । বিনি আজ সকালেই চলে গেলে বাঁধের কাছে । চড়া পড়া নদী জলে টইটুম্বুর । সারা বছরই জল থাকে না । চাষবাস করে । আজ যেন চেনাই যাচ্ছে না । রাস্তায় কাতারে কাতারে লোক । কত বালির বস্তা নিয়ে এদিক ওদিক যাচ্ছে আসছে ।

বাঁধ উপচে জল গ্রামে ঢুকবে না । কিন্তু ছোট খাটো যে সব গর্ত তাই বড় আকার ধারণ করছে । কিছুটা নদীর দিক থেকে বালির বস্তায় আটকানোর চেষ্টা হচ্ছে । জলের তলায় যে গর্ত তাকে সামাল দিতে হচ্ছে গ্রামের দিকের বাঁধে বালির বস্তা দিয়ে । সেখানেই বিলুর সাথে দেখা ।

-কি রে বিনি , হাত লাগা না হলে গ্রাম ভেসে যাবে ?
-যা দেখছি কিছু করা যাবে বলে মনে হয় না ।
-তবুও চেষ্টার ক্রুটি রাখতে নেই ।
দুজনেই বালির বস্তা গর্তটার কাছে আনল । অনেকেই বাঁশ পুঁতছে । সেখানের একজন বলল – আগে একটু নদী সংস্কার বাঁধ মেরামত করলে হত । এখন করে কিছু কি হবে ?
বিলু কাজের ফাঁকে বিনিকে বলে – তোর মা কি আলাদাই থাকে ?
-হ্যাঁ ।
-তোর বউ মানিয়ে নিতে পারল না ।
-আর আমি বউকেও মানিয়ে নিতে হিমসিম । সম্পর্কের এই উথাল পাথালে কোন কুল বাঁচাই । ভুল ঠিকের মাঝে নানান গর্ত । শেষে না সব বালির বাঁধ হয়ে যায় ।

বলতে বলতে একদিকে ভেঙে গেল বাঁধ । আর আটকানো গেল না । সবাই গ্রামের দিকে নিজেদের বাঁচাতে ছুটল । দেখা যাক তাদের মত বিনি তার সংসার বাঁচিয়ে বড় রাস্তায় দাঁড় করাতে পারে কি না ?

গল্পের বিষয়:
হাস্যরস
DMCA.com Protection Status
loading...

Share This Post

সর্বাধিক পঠিত